vlxxviet mms desi xnxx

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি

0

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? | কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব

বর্তমানে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও ফ্রিল্যান্সার এর হার অনেকাংশে বেড়ে গেছে। এবং ফ্রিল্যান্সারদের কাজ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের সেক্টর রয়েছে। আর তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে গ্রাফিক ডিজাইন। বহুল প্রচলিত এবং সহজে দক্ষতা অর্জন করে গ্রাফিক ডিজাইনার হওয়া যায়। আপনার সৃজনশীল জ্ঞান এবং ও কর্ম দক্ষতার উপর নির্ভর করবে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন এ কতটা দক্ষতা অর্জন করতে পেরেছেন। গ্রাফিক ডিজাইনার এমন একটি প্রফেশন, যে প্রফেশনে একবার ভালো দক্ষতা অর্জন করলে আর ঘুরে তাকাতে হয় না।

আরো পড়ুন: অনলাইনে আয় করার সহজ উপায়

আপনারা চাইলে এখন যে কোনো ইন্সিটিউট এ অথবা আপনারা ঘরে বসে বিভিন্ন উপায়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে একজন দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারে। সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখা যায় গ্রাফিক ডিজাইনে এর সমারোহ। কারণ বর্তমানে গ্রাফিক ডিজাইনের হার অনেক বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং এর চাহিদাও অনেক পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে তার আগে জানতে হবে গ্রাফিক ডিজাইন কি? তাই আজ আমরা আপনাদেরকে কাছে নিয়ে আসলাম গ্রাফিক ডিজাইন সম্পর্কে বিস্তারিত সকল সমস্যার সমাধান নিয়ে। তাহলে জেনে নেই গ্রাফিক্স ডিজাইন কি এবং এর বিস্তারিত সম্পর্কে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

এক কথায় গ্রাফিক ডিজাইন হচ্ছে একটি আর্ট বা শিল্প। যা একজন ব্যক্তির কম্পিউটারের সফটওয়্যার এর মাধ্যমে ডিজাইন তৈরি করে থাকে। কম্পিউটারের সফটওয়্যার ব্যবহার করে কোন চিত্র অথবা কোন নকশা অংকন করাকে গ্রাফিক ডিজাইন বলে। আর যে ব্যক্তি এই ডিজাইন করা তাকে গ্রাফিক ডিজাইনার বলা হয়।

গ্রাফিক্স শব্দটির জার্মান শব্দ থেকে আগত। এটি একটি সৃজনশীল প্রক্রিয়া। বর্তমানে গ্রাফিক ডিজাইন একটি জনপ্রিয় এবং সৃজনশীল হিসেবে পরিচিত। আপনি আপনার সৃজনশীল এবং দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে আপনার ডিজাইন ইউনিক এবং ক্রিটিভ করে তুলতে পারেন।

এখন ভাবছেন গ্রাফিক ডিজাইনে আসলে কি অঙ্কন করা হয়? গ্রাফিক ডিজাইনে আপনি বিভিন্ন ধরনের ,ব্যানার, লোগো, ওয়েবসাইট ইন্টারফেস সহ অনেক কিছু ডিজাইন করে ডিজিটালে রূপান্তর করতে পারবেন। বর্তমানে গ্রাফিক ডিজাইন সর্ব ক্ষেত্রে একটি রোল মডেল হিসেবে পরিচিত লাভ করেছে। এবং বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে গ্রাফিক ডিজাইনাররা তাদের ক্রিয়েটিভিটি প্রমাণ দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্মগুলোতে অনেক পরিচিত লাভ করেছে এবং জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স

আপনি যদি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে চান অথবা আপনি যদি আপনার ক্যারিয়ার হিসেবে গ্রাফিক ডিজাইন বেছে নিতে চান, তাহলে আপনাকে অবশ্যই গ্রাফিক ডিজাইনের ওপর সৃজনশীলতা এবং দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে। এটার জন্য আপনাকে কোর্স করতে হবে। এটি কোন প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নয় যে কোর্স ছাড়া আপনি প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যবহার করে গ্রাফিক ডিজাইনার হতে পারবেন।

আপনি যদি গ্রাফিক ডিজাইনার  হতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই একটি ভালো মানের কোর্স করে নিতে হবে তবে আজকাল ইউটিউবে ভিডিও দেখে অনেকে গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে পারছে। তবে সেটি বেসিক হিসেবে কাজে লাগছে কিন্তু এডভান্স হিসেবে কাজে লাগে আসবে না। তাই আপনাকে অবশ্যই একটি কোর্স করতে হবে।

ফেসবুকে অনেক গ্রুপ এবন গপেজ আছে যেখানে কোর্স করায় এবং অনেক নাম করা প্রতিষ্ঠান আছে যেখানে আপনি চাইলে গ্রাফিক ডিজাইন এর কোর্স করতে পারবেন। 

কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব

আপনি এখন ভাবছেন গ্রাফিক ডিজাইন কিভাবে শিখব? দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। কারন  গ্রাফিক ডিজাইন শেখার অনেকগুলো পথ রয়েছে। বর্তমানে গ্রাফিক ডিজাইন শেখা অনেকটা সহজ হয়ে গিয়েছে কারণ বর্তমানে গ্রাফিক ডিজাইনের ওপর প্রচুর পরিমাণে কোর্স রয়েছে এবং ব্যক্তিবর্গ তারা বিভিন্ন ধরনের ইন্সটিটিউট তৈরি করেছেন।  তারা পেইড কিছু ভিডিও ভিডিও করে রেখেছেন। যারা নতুন গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চায় তাদের জন্য অথবা তারা ইউটিউব এর মাধ্যমে তাদের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের ভিডিও তৈরী করে থাকে। 

আবার অনেকে গ্রাফিক ডিজাইনের উপর একটি ছোট অফিস তৈরি করে নিয়েছে। সেখানে তারা বিভিন্ন ধরনের কোর্স এর পাশাপাশি গ্রাফিক ডিজাইন কোর্সটি চালু রেখেছে। আর কোর্সের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ অথবা যারা গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চায় তারা গ্রাফিক ডিজাইন শিখে একজন দক্ষ গ্রাফিক ডিজানার হয়ে ওঠে। এবং তারা দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে সেখানে কাজ করে জনপ্রিয়তা অর্জন করছে।

আরো পড়ুন: ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো 

আপনারা উচিত ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে এবং গ্রাফিক ডিজাইন সম্পর্কে ভালকরে জেনে নিয়ে, কোথায় শিখলে  ভালো হবে সেটি জেনে নিয়ে আপনি যেকোনো একটি কোর্সে ভর্তি হয়ে যেতে পারেন। এবং সেখানে আপনি আপনার প্রয়োজন এবং দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে একজন দক্ষ গ্রাফিক ডিজানার হয়ে উঠতে পারেন। অথবা আপনি চাইলে গ্রাফিক ডিজাইনের উপর বেসিক ধারণা নেয়ার জন্য ইউটিউব এর বিভিন্ন ভিডিও রয়েছে সেগুলো দেখতে পারেন। এরপর আপনার বেসিক ধারণা থেকে আপনি নিজেকে আরও উন্নত করার জন্য যেকোনো ধরনের অনলাইন অথবা অফলাইন কোর্স করতে পারেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কি কি লাগে

আপনি ভাবছেন আপনি গ্রাফিক ডিজাইন শিখবেন কিন্তু এই গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কি কি লাগে সেটি জানা নেই। গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে আপনার সবার আগে প্রয়োজন আপনার ইচ্ছাশক্তি এবং গ্রাফিক ডিজাইনে প্রতি ভালোবাসা এবং ভালোলাগা। আপনি যদি এই কাজটিকে ভালোবাসতেই না পারার অথবা এ কাজটি প্রতি আপনার ইচ্ছাশক্তি নাই থাকে তাহলে আপনি এ কাজটি শত চেষ্টা করার পরেও শিখতে পারবেন না।

এরপর আপনার যা লাগবে তা হচ্ছে অর্থ। আপনি অর্থ ব্যয় করে বিভিন্ন মেয়াদী কোর্স করে গ্রাফিক ডিজাইনে দক্ষতা অর্জন করতে পারে। এবং আপনার এই গ্রাফিক ডিজাইন এর কাজ গুলো প্র্যাকটিস করার জন্য আপনার প্রয়োজন একটি ভাল কনফিগারেশন এর কম্পিউটার।

এখানে আপনি বাজেট হিসেবে প্রায় ৩০থেকে ৪০ হাজার অথবা এর অধিক অর্থ ব্যয় করতে পারেন। তবে আপনি যত ভালো বাজেটের কম্পিউটার কিনবেন আপনার কাজ ততো ভালো হবে, এবং আপনার কাজের আউটপুট তত সুন্দর হবে। এরপর আপনার এ কাজগুলো করার জন্য কিছু সফটওয়্যার প্রয়োজন। তবে অবশ্যই আপনাকে ইন্টারনেট কানেকশন রাখতে হবে নতুবা আপনি মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারবেন না। ছারাও আপনার কমিউনিকেশন সিস্টেম সচল রাখতে হবে। চলুন এখন এক নজরে জেনে নেই গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে কি কি লাগে?

  • ইচ্ছাশক্তি এবং কাজের প্রতি অদম্য ভালোবাসা। 
  • একটি ভালো মানের কম্পিউটার। 
  • ইন্টারনেট কানেকশন। 
  • সফটওয়্যার 
  • কোর্স করার মানসিকতা এবং অর্থ ব্যয়ের ইচ্ছাশক্তি।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি | গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যার

গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে কোন কোন সফটওয়্যার এর প্রয়োজন হয়। আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাহলে সবার আগে আপনার প্রয়োজন এডোবি ফটোশপ (Adobe Photoshop) এবং এডোবি ইলাস্ট্রেটর (Adobe Illustrator)। প্রধানত দুটি সফটওয়্যার দিয়ে আপনি গ্রাফিক ডিজাইনে অনেক ডিজাইন করতে পারবেন। মূলত এ দুটি সফটওয়্যার হচ্ছে আপনার গ্রাফিক ডিজাইনের মূল সফটওয়্যার। 

অ্যাডোবি ফটোশপ: এডোবি ফটোশপ (Adobe Photoshop) হচ্ছে একটি রাষ্টার সফটওয়্যার। আপনি এডিটিং জাতীয় যত কাজ করতে চান এই সকল কাজ আপনি এডোবি ফটোশপ ব্যবহার করে করতে পারবেন। 

অ্যাডবি ইলাস্ট্রেটর: আর অন্যদিকে আপনি যদি নতুন কিছু তৈরি করতে চান অথবা ভেক্টরের বিভিন্ন কাজ করতে চান তাহলে আপনাকে এডোবি ইলাস্ট্রেটর সফটওয়্যার  (Adobe Illustrator) ব্যবহার করতে হবে। 

অ্যাডবি এক্সডি: তবে গ্রাফিক ডিজাইনে অ্যাডভান্স লেভেলের একটি সফটওয়্যার রয়েছে। যার নাম এডোবি এক্সডি (Adobe XD)। আপনি যদি UI/UX  ডিজাইন শিখতে চান তাহলে আপনাকে এডোবি এক্সডি (Adobe XD) সফটওয়্যার সম্পর্কে জানতে হবে। এ সফটওয়্যার মাধ্যমে ওয়েবসাইট ডিজাইন টেমপ্লেট তৈরি কাজ করা হয়। এটিও কিন্তু গ্রাফিক ডিজাইন এর একটি অন্যতম এবং মূল্যবান সফটওয়্যার।

এছাড়াও রয়েছে ভিডিও এডিটিং এবং এনিমেশন এডিটিং এবং থ্রিডি এনিমেশন কাজ। আপনি যদি গ্রাফিক ডিজাইন এর আওতায় এ ধরনের কাজ শিখতে চান তাহলে আপনাকে এডোবি প্রিমিয়াম প্র (Adobe Premiere Pro), এডোবি আফটার ইফেক্ট  (Adobe After Effect) এবং এডোবি লাইটরুম (Adobe Lightroom)এ ধরনের সফটওয়্যার সম্পর্কে জানতে হবে.

আপনারা এই সফটওয়্যার গুলো কোথায় পাবেন? এ ধরনের সফটওয়্যার গুলো আপনারা বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে ফ্রিতে ডাউনলোড করতে পারবেন. তবে আপনারা যখন কাজ করবেন তখন আপডেট ভার্সন নিয়ে কাজ করা ভালো. কারণ আমাদের প্রযুক্তি সবসময় আপডেট হতে থাকে এবং যুগের সাথে তালে তালে আমাদেরকেও চলতে হয়।

মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন

আমাদের অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক ডিজাইন শেখা যায় না অথবা কাজ করা যায় না। আপনার মনেই এ ধরনের কোনো প্রশ্ন থাকলে আমি সরাসরি ,না। কারণ একটি কম্পিউটার আপনাকে যে সার্ভিস প্রদান করবে সেটি কিন্তু মোবাইল করতে পারবে না। মোবাইল আর কম্পিউটার সম্পূর্ণ আলাদা দুটিডিভাইস। তবে আপনি কি এক কাজ পারেন যে, মোবাইলের সাহায্যে আপনি ইউটিউব এর ভিডিও দেখিয়ে গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে পারবেন। কিন্তু আপনার প্রতিদিনের প্র্যাকটিসের জন্য গ্রাফিক ডিজাইন মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব নয়।

যদিওবা কিছু অ্যাপস রয়েছে যেখানে আপনি মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক ডিজাইন করতে পারেন। তবে সত্যিই গ্রহণযোগ্য নয়। এবং আপনি এটি ব্যবহার করে আপনার সঠিক দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন না। আপনার দক্ষতা এবং সৃজনশীল কাজে লাগানোর জন্য আপনাকে অবশ্যই কম্পিউটার ক্রয় করতে হবে এবং এটি দিয়ে কাজ করতে পারবেন। মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার গড়া যায় না।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে

গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগে? এটি সম্পূর্ণ নির্ভর করবে আপনার গ্রহণযোগ্যতার ওপর। আপনি যত তাড়াতাড়ি গ্রহণ করতে পারবেন ঠিক ততো তাড়াতাড়ি আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন। কারন আপনি যত তাড়াতাড়ি ”গ্রাফিক্স ডিজাইন কি” আয়ত্তে আনতে পারবেন।

আপনি যদি গ্রাফিক ডিজাইন কোর্স করতে চান তাহলে আপনাকে বিভিন্ন মেয়াদী কোর্স করতে হবে। বেশিরভাগ গ্রাফিক ডিজাইনে কোর্সগুলো .৩ মাস থেকে ৬ মাস মেয়াদি হয়ে থাকে। আপনি যদি প্রত্যেক দিন এই গ্রাফিক ডিজাইনের ওপর চার থেকে পাঁচ ঘন্টা সময় দেন তাহলে আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি আপনি ছয় মাসের মধ্যে একজন দক্ষ ডিজাইনার হয়ে যাবেন। যে কাজে আপনি যত সময় ব্যয় করবেন সে কাজে আপনি তত দ্রুত দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে কি করা যায়

গ্রাফিক ডিজাইন শিখে আপনি অনেক কিছু করতে পারবেন। সবার আগে আপনি যেটি করবেন আপনি আপনার বেকারত্ব হ্রাস করতে পারবেন। চলুন তাহলে জেনে নেই গ্রাফিক ডিজাইন শিখে কি কি করা যেতে পারে।

  • গ্রাফিক ডিজাইন শিখে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারে। 
  • আইটি কোম্পানি অথবা আইটি সেক্টর তৈরি করে নিতে পারেন। 
  • গ্রাফিক ডিজাইন শিখে আপনি একজন শিক্ষক হিসেবে যেকোনো আইটি কোম্পানিতে জয়েন করতে পারবেন। 
  • গ্রাফিক ডিজাইন শিখে আপনি ভালো বড় কোন কোম্পানিতে গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবে জয়েন করতে পারবেন। 
  • তাছাড়া আপনি যদি কোন ব্যবসা করেন তাহলে সেই ব্যবসা্র যে কোন ধরনের ডিজাইন প্রয়োজন হতে পারে যে সকল ডিজাইন আপনি নিজেই তৈরি করতে পারবেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি | গ্রাফিক্স ডিজাইন বই

”গ্রাফিক্স ডিজাইন কি” শেখার জন্য বাজারে গ্রাফিক ডিজাইনের বই পাওয়া যায়। তবে এটি তেমন কার্যকর নয়। কারণ গ্রাফিক ডিজাইন হচ্ছে আপনার সম্পূর্ণ হাতে-কলমে শেখার এবং প্র্যাকটিস করার একটি বিষয়। এটি মুখস্থ করার বিষয় নয়। তাই গ্রাফিক ডিজাইনের বই কেনার থেকে আপনি কোন অভিজ্ঞ ব্যক্তির কাছে কোর্স করা অথবা তার কাছে শিখে নেওয়াটাই উত্তম হবে।

এই ধরনের বই কিনে আপনি কিছু সংজ্ঞা এবং সফট্ওয়ারে টুলস সম্পর্কে জানতে পারবেন  কিন্তু একটি নতুন ডিজাইন কিভাবে করবেন তাঁর কনসেপ্ট আপনার আসবেনা। আপনি যত বেশি প্র্যাকটিস করবেন তত বেশি আপনার ডিজাইনের কনসেপ্ট ভালো হবে। তাই গ্রাফিক ডিজাইনে বই না কিনে ভিডিওর মাধ্যমে অথবা কোনো দক্ষ ব্যক্তির কাছ থেকে শিখে দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন।

উপসংহার: আশা করি আমরা আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইন কি সে সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা দিতে পেরেছি। আপনার মধ্যে থাকা অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে পেরেছি। আপনারা যদি দক্ষ গ্রাফিক ডিজাইনার হতে চান তাহলে আপনাদের অবশ্যই এ ধরনের পথ অবলম্বন করতে হবে।

গ্রাফিক ডিজাইনের উপর দক্ষতা অর্জন করে, ফ্রিলান্সিং পেশায় নিয়োজিত হলে আপনার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ রয়েছে। এবং আপনি আপনার পরিবার পাশে দাঁড়াতে পারবেন। বর্তমান যুগে গ্রাফিক ডিজাইনের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আপনি যদি ভেবে থাকেন আপনি গ্রাফিক ডিজাইনার হবেন তাহলে আপনি দক্ষতা অর্জন করে অর্থ উপারজন করতে পারেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex