vlxxviet mms desi xnxx

জমির নকশা কোথায় পাওয়া যায়

0

জমির নকশা কোথায় পাওয়া যায় | অনলাইনে জমির নকশা দেখা

আজকে আমরা আমাদের এই আর্টিকেলটিতে আমরা আলোচনা করব জমি সংক্রান্ত সব বিস্তারিত নিয়ম। আপনারা অনেকেই হয়তো জানেন না জমির নকশা কোথায় পাওয়া যায়। আপনারা যদি আমাদের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে জানতে পারবেন জমির নকশা কোথায় পাওয়া যায় বা জমি সংক্রান্ত সব রকমের তথ্য। আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন।

আরো দেখুনঃ জমির হিসাব বের করার নিয়ম.

জমির নকশা কোথায় পাওয়া যায়

আমাদের প্রত্যেকেরই কমবেশি বমি বা জমি রয়েছে। সকল জমির যে সকল তথ্য বা ডকুমেন্ট থাকে তারমধ্যে উল্ল্যেখযোগ্য হল-

  1. খতিয়ান বা পর্চা।
  2. দলিল।
  3. ম্যাপ নকশা।

অনেক সময় এ ধরনের ডকুমেন্ট আমাদের  সংগ্রহে থাকেনা বিভিন্ন কারণে হাতছাড়া হয়ে যায়। অনেক সময় হারিয়ে যায় নষ্ট হয়ে যায় বা চুরি হয়ে যায়। তবে একটি জমির ক্ষেত্রে এই ধরনের তথ্য বা ডকুমেন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই ধরনের ডকুমেন্ট ছাড়া আপনি জমি বিক্রয় বা ব্যাংক হতে লোন নিতে পারবেন না। চলুন দেখে আসি প্রথমেই জমির খতিয়ান সম্পর্কে।

অনেকের মনেই প্রশ্ন আসে জমির খতিয়ান কি?খতিয়ান হলো একাধিক কলামে জমির মালিকের নাম, পিতার নাম, ঠিকানা, দাগ নং (Plot Number), জমির শ্রেণী, পরিমাণ, অংস খাজনা ইত্যাদি তথ্য লিপিবদ্ধ থাকে তাকে খতিয়ান বলে। খতিয়ানে কোন এক মৌজায় কোন একজন মালিকের জমির বিবরণ থাকে। আবার একটি খতিয়ানে একাধিক মালিকের জমির বিবরণও থাকতে পারে। এই লেখককে  স্বত্বের রেকর্ড বা রেকর্ড অফ রাইটস(ROR) বলা হয়।

সিএম, এসএ,আরএস এর জন্য মাত্র 20 টাকা বা কোর্ট ফি। সিটি জরিপের জন্য 100 টাকা খরচ হবে।

ইউনিয়ন ভূমি অফিস বা তফসিল অফিস থেকে  আপনি খসড়া খতিয়ান নিতে পারবেন। যেটার কিনা কোন আইনত মূল্য নেইতার পরেও অফিসটি খুব গুরুত্বপূর্ণ কারণ আপনার জমির খতিয়ান নাম্বার না জানলে এই অফিস থেকে জেনে নিতে পারবেন। এই অফিসে যদিও খতিয়ান বা পর্চার বালাম বই থাকে তবে আপনি এই অফিস থেকে খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি নিতে পারবেন না। এই অফিসে জমির খাজনা বা ভূমি উন্নয়ন কর দিতে হয়।

আরো দেখুনঃ

উপজেলা ভূমি অফিস থেকেও আপনি খতিয়ানের সার্টিফাইড পর্চা বা কোর্ট পর্চা তুলতে পারবেন না। খতিয়ানের পর্চা তুলতে পারবেন। যদিও এই অফিসের কাজ জমির নামজারি বা খারিজ করা।

জেলা ডিসি অফিস থেকে আপনি পর্চা বা খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি সংরক্ষণ করতে পারবেন। এই অফিসের খতিয়ান এর গুরুত্ব অনেক। সব জায়গাতেই এই অফিসের খতিয়ান এর অনেক গুরুত্ব রয়েছে।

সেটেলমেন্ট অফিস থেকে আপনি শুধুমাত্র নতুন রেকর্ড বা জরিপের পর্চা/ খতিয়ান এখান থেকে গ্রহণ করতে পারবেন। সেইসাথে আপনি নতুন রেকর্ড এর ম্যাপ ও গ্রহণ করতে পারবেন।

আপনাদের অনেকেরই প্রশ্ন থাকে জমির দলিল বা বায়া দলিল কোথায় পাবেন। দলিল বা দলিলের সার্টিফাইড কপি বা নকল মূলত দুটি অফিস থেকে সংগ্রহ করা যাবে।

  1. উপজেলা সাব রেজিস্ট্রি অফিস।
  2. জেলা রেজিস্ট্রি অফিস বা সদর রেকর্ডরুম অফিস।

নতুন দলিল রেজিস্ট্রেশন করা হয় উপজেলা সাব রেজিস্ট্রি অফিস থেকে দলিলের নকল ও মূল দলিল পাওয়া যায়। কিন্তু পুরাতন দলিল বা বায়া দলিল আপনি এই অফিস থেকে পাবেন না।

জেলা রেজিস্ট্রি অফিস বা সদর রেকর্ড রুম থেকে আপনি পুরাতন বা নতুন দলিলের সার্টিফাইড কপি বা নকল পাবেন। যদি কোন দলিল সঠিকভাবে খোঁজ করে না পাওয়া যায় তাহলে আর অন্য কোন অফিস থেকে পাবেন না। দলিল তোলার ক্ষেত্রে টাকা খরচের বিষয়টা কিন্তু নকলের খরচটা নির্ভর করে ওই  জায়গার সিন্ডিকেটের উপর। জমির ম্যাপ নকশা মূলত আপনারা দুইটি জায়গায় পাবেন।

  1. জেলা ডিসি অফিস।
  2. ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তর অফিস,ঢাকা।

জেলা ডিসি অফিস থেকে আপনি সিএস,এসএ, আরএস, বিএস, যে কোন মৌজার ম্যাপ বা নকশা সংগ্রহ করতে পারবেন। এই নকশা সংগ্রহ করতে আপনার যা লাগবে তা হলো একটি আবেদন ফরম 20 টাকার কোর্ট ফি এবং 500 টাকা নগদ জমা ভিসি আর আর বাবদ। সর্বমোট 520 টাকা লাগবে।

ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তর থেকে সারা বাংলাদেশের মৌজা ম্যাপ সিএস,এসএ,আরএস, বিএস,জেলা ম্যাপ,বাংলাদেশ ম্যাপ তুলতে পারবেন। বাংলাদেশের যে কোন ম্যাপে অফিস থেকে পাওয়া যায়। ম্যাপ তুলতে খরচ হয় আবেদন ফরম কোর্ট ফি ডিসিআর সর্বমোট 520 টাকা লাগে। ম্যাপ তুলতে সময় লাগে আবেদন করার দিন হতে 2-5 দিন এর মধ্যেই ম্যাপ সংগ্রহ করা যায়।

আরো দেখুনঃ অনলাইনে জমির মালিকানা যাচাই.

অনলাইনে জমির নকশা দেখা

 ডিজিটাল যুগে এখন আপনি ঘরে বসেই অনলাইনে জমির মৌজা ম্যাপ বা নকশা দেখে নিতে পারেন সহজেই। এখন আর পুরনো ম্যাপ কত কষ্ট করে বহন করতে হয় না চাইলেই যেখানে ইচ্ছা সেখানে  যখন ইচ্ছা তখন অনলাইনে  মৌজা ম্যাপ দেখা যায়।

জমির নকশা ডাউনলোড

  •  ডিজিটাল ভূমি সেবা মেনু থেকে মৌজা ম্যাপ অনলাইন আবেদনের সিস্টেম দেখতে পারবেন।
  • এখন একই ভাবে আপনি চাইলে ম্যাপ থেকে অথবা সরাসরি বিভাগ নির্বাচন করুন।
  • জেলা নির্বাচন করুন।
  • ম্যাপের টাইপ বা ধরন (আরএস) নির্বাচন করুন।
  • এবার উপজেলা/সার্কেল নির্বাচন করে আপনার এলাকার মৌজা সিলেক্ট করুন।
  • সিট একাধিক থাকলে সেগুলো সিলেক্ট করুন এবং সবশেষে অনুসন্ধান করুন।
  •  ফলাফলে আপনার সামনেই ম্যাপ চলে আসবে এবং আপনি চাইলে সেটি একই প্রক্রিয়ায় সার্টিফাইড কপি জন্য আবেদন করতে পারেন।

উপসংহার: জমি সংক্রান্ত সকল তথ্য সব মানুষেরই জেনে রাখা উচিত এবং এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। অনেক সময় গুলোর জন্য আমাদের নানাবিধ ঝামেলায় পড়তে হয় সময় দুর্নীতির মুখেও পড়তে হয়। তাই এগুলো জেনে রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। করি এখন আপনারা জেনেছেন  জমির নকশা কোথায় পাওয়া যায়। আশাকরি উপরের বিস্তারিত তথ্য গুলো পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex