vlxxviet mms desi xnxx

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

0

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম: আপনি কি ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে চান? একাউন্ট খোলার নিয়মাবলী সম্পর্কে জানতে চান?

যুগ যুগ ধরে, জীবিকা নির্বাহের তাগিদে মানুষের অর্থের প্রয়োজন হয়। পূর্বে অর্থের যোগানদাতা ছিল একমাত্র কৃষিকাজ। গ্রামের নিরীহ মধ্যবিত্ত কৃষকদের নিজের জমিজমা ছিলনা। তখন অর্থ সংকটে কৃষকরা তাদের জীবিকা নির্বাহের জন্য কৃষিকাজ করতেন। নিজের জমি ছিল না বিধায় অন্যের জমিতে কাজ করতেন। 

যদি কৃষি কোন মুনাফা অর্জন করতেন  তা আর কৃষকরা পেতেন না। মহাজনদের দিয়ে দিতে হত। আবার অনেকেই মহাজনদের কাছে কিছু টাকা সঞ্চয় করতেন।মহাজনরা সেই সম্পদের উপর ভিত্তি করে তাদের ঋণ প্রদান করতেন। অনেক ক্ষেত্রে মহাজনরা সম্পত্তি সহ কেড়ে নিয়ে তাদের নিঃস্ব করে তুলতেন। সেই সকল মহাজনদের কবল থেকে মানুষকে পরিএান দিতে আবির্ভাব হয়েছে ব্যাংকিং সুবিধার।

আরো পড়ুন: সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

সময়ের সাথে সাথে মানুষ আধুনিক হয়েছে। সেই সাথে পাল্লা দিয়ে মানুষের দৈনন্দিন জীবনে চাহিদাও বেড়েছে। মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা সব সময় এক থাকে না। আজ যেমন ভালো, ঠিক তেমনি করে ভবিষ্যতে অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ হতে পারে। আজ পুরো সংসার যার উপর নির্ভর করছেন কাল তিনি নাও থাকতে পারেন। শখের চাকরীটি আজ আছে কিন্তু কাল চলে যেতে পারে। জীবনে কোন কিছুই চিরস্থায়ী নয়। কোন ধরনের ভরসা থাকেনা।

তাই মানুষ তার জীবনের প্রয়োজনে,তার অর্থনৈতিক প্রয়োজনে, ভবিষ্যৎ জীবনের কথা মাথায় রেখে সঞ্চয় করতে চায়। একসময় মানুষ তেমন সঞ্চয় এর দিকে নজর দিত না।কিন্তু বর্তমানে মানুষ পূর্বের তুলনায় অনেক সচেতন হয়েছে।নিজের জন্য, নিজের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা চিন্তা করে আজকাল মানুষ সঞ্চয়ে মনোনিবেশ করেছে।

সঞ্চয় হল ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য আমানত স্বরূপ।মানুষ তাই নিজের পরিবারের কথা চিন্তা করে, ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে সঞ্চয় করে।একসময় মানুষ নিজের সংগ্রহে কিংবা মাটির ব্যাংকে অর্থ  সঞ্চয় করতেন। কিন্তু নিজের সংগ্রহে সঞ্চয় করার কারণে  তা কোন না কোন একসময় খরচ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাছাড়া হঠাৎ প্রয়োজনে নিজের সংগ্রহে সঞ্চয়ের টাকা ছিল ভুলে যাবার সম্ভাবনা রয়েছেই!

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে

ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক পরিচালিত বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যাংকিং পরিসেবা হল ইসলামী ব্যাংক। ২০০৪ সালে পরিচালিত এই ব্যাংকটি সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থানে পৌঁছেছে। প্রায় লক্ষাধিক গ্রাহক এই ব্যাংকের সেবা গ্রহণ করেছে। সম্পূর্ণ সুদ গ্রহণ বিহীন লেনদেন সুবিধার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে এই ব্যাংকিং সেবার মধ্যে।

আপনি যদি ইসলামী ব্যাংক থেকে একাউন্ট খুলতে চান তাহলে আপনার অবশ্যই প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্র সংগ্রহে রাখতে হবে।ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে আপনার যা যা লাগবে তা হল-

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম ধাপসমূহ

ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে চাইলে আপনাকে কিছু ধাপসমূহ অনুসরণ করতে হবে।নিচে ধাপ সমূহ আলোচনা করা হল-

  • ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে চাইলে প্রথমে আপনাকে আপনার এলাকার নিকটবর্তী ইসলামী ব্যাংকের শাখায় উপরোক্ত কাগজপত্র সাথে নিয়ে যেতে হবে। 

  • পরবর্তী এজেন্ট আপনাকে একটি ফরম দিবে।

  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের যাবতীয় তথ্যাদি দেখে ফরমটি  পূরণ  করতে হবে।

  • ফর্মটি পূরণ করলে আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপএ যেমন ন্যাশানাল আইডি কার্ডের ফটোকপি,ছবি,নমিনি, নমিনির ছবি সহ সমস্ত কাগজপত্র জমা দিতে হবে।

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে চাই

  • কাগজপত্রের সাথে আপনি যা একাউন্ট খুলতে চান তার জন্য বরাদ্দকৃত একটি চার্জ প্রদান করতে হবে।

  • এজেন্ট আপনার কাগজপত্র যাচাই বাছাই করে আপনাকে একাউন্ট করতে সাহায্য করবে। 

  • একাউন্ট খোলা হয়ে গেলে আপনার প্রদত্ত মোবাইল ফোনে  একটি কোড আসবে।উক্ত কোডের আলোকে আপনার এটিএম কার্ড প্রদান করা।

অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনি যদি অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে চান তাহলে তা সম্ভব।আপনি ঘরে বসে নিজের তথ্যাদি পূরণ করে খুলতে পারেন ইসলামী ব্যাংকের একাউন্ট। অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম তুলে ধরা হল-

  • ঘরে বসে মোবাইলের মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে হলে সবার আগে আপনার মোবাইল ফোনে Cell fin নামে একটি এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন ডাইনলোড করে নিতে হবে।আপনাদের সুবিধার জন্য আমি এপ্লিকেশনটি লিংক দিয়ে দিচ্ছি।

লিংকঃ play.google.com/store/

  • উক্ত লিংক থেকে এপ্লিকেশন ডাইনলোড করে নিয়ে এপ্লিকেশন ওপেন করে নিতে হবে।এপ্লিকেশন ওপেন করে আপনাকে Open account অপশনে ক্লিক করতে হবে।

  • তারপর এপ্লিকেশনের পিন দিয়ে ক্লিক করলে একটি ফরম  আসবে।

  • পেইজে যাবতীয় তথ্য দিয় ফর্মটি পূরণ করতে হবে।

  • ফরম পূরণ করে আপনি কি ধরনের অ্যাকাউন্ট বেছে নেবেন তা সিলেক্ট করতে হবে।

  • সিলেক্ট করার পর এন্টার বাটনে  ক্লিক করলে একাউন্ট খোলা হয়ে গেছে।

  • একাউন্ট খোলা হয়ে গেলে আপনাকে আপনার এটিএম কার্ড কিংবা চেকবুক নেবার জন্য নিকটস্থ ব্রাঞ্চ সিলেক্ট করতে হবে।

ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট দেখার উপায়

আপনারতো ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম দেখা শেষ৷ এখন আপনি যদি আপনার ইসলামী ব্যাংক একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করতে চান তাহলে আপনাকে নিচের নিয়ম অনুসরণ করুন :-

আপনি sms এর মাধ্যমে আপনার একাউন্টে ব্যালেন্সের পরিমাণ চেক করতে পারবে৷ তারজন্য আপনাকে  আপনার মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে লিখতে হবে-

IBB <space> BAL <space> Send to : 26969

উদাহরণঃ IBB BAL send 26969

আপনি চাইলে জিপি সীম থেকেও ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন। তার জন্য জিপি সিম থেকে টাইপ করে পাঠিয়ে দিতে হবে :-

IBB <space> BAL <space> Send to :16259

আপনি যদি বিদেশ থেকে ব্যালেন্স চেক করতে চান। তার জন্য আপনার মোবাইল অপশনে গিয়ে টাইপ করতে হবে।

IBB <space> BAL <space> Send to : +8801714006969

উদাহরণঃ IBB BAL send +8801714006969

আপনার একাউন্ট এ সর্বশেষ ৫ টি লেনদেন দেখতে হলে

IBB <space> STM  <space> Send to : 26969

উদাহরণঃ IBB STM 26969

এছাড়াও আপনি Self Pin এপ্লিকেশন থেকে এপ্লিকেশন ওপেন করে সরাসরি চেক ব্যালেন্স অপশনে গেলে একাউন্ট চেক করতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংকের নীতিমালা 

সকল ব্যাংক অবশ্যই ব্যাংকিং সেবা খাতে কিছু কিছু না কিছু নীতিমালা অনুসরণ করে। ইসলামী ব্যাংক তার ব্যতিক্রম নয়ম।

চলুন তাহলে জেনে আসি কি কি নীতিমালা অনুসরণ করে ইসলামী ব্যাংক :

  • ইসলামী ব্যাংকে লোন থেকে কোনো ধরণের সুদ গ্রহণ করা হয় না।

  • ইসলামী ব্যাংকের ব্যাংকিং সুবিধা ব্যবস্থা পুরোপুরি শরিয়াহ মোতাবেক পরিচালিত।

  • ইসলামী ব্যাংক তাদের চুক্তির নীতিমালা গ্রহণ করে থাকে।

  • ইসলামী ব্যাংক ঋণ প্রদানের আগে যাচাই বাছাই করে। তাদের নিয়ম নীতির বাইরে এর লোন সুবিধা গ্রহণ করা  সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

  • ইসলামী ব্যাংকে লোন দাতাকে লোন গ্রহীতা না বলে বিনিয়োগকারী হিসেবে বিবেচ্য করা হয়।

আপনি যদি আপনার ব্যক্তিগত অর্থ সঞ্চয়ের  জন্য কোন ব্যাংক খুঁজে থাকেন তাহলে আপনি একাউন্ট খুলতে পারেন ইসলামী ব্যাংকে।এই ব্যাংক তাদের গ্রাহকদের বিস্তর সুযোগ সুবিধা  দিয়ে থাকে।আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী কোন ধরণের একাউন্ট খুলতে চান তা বেছে নিতে পারবেন। 

উপসংহার: মানুষের ব্যক্তিগত,পারিবারিক কিংবা ব্যবসায়ের সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে আবির্ভাব হয়েছে ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনার।ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনার আলোকে আপনি আপনার সঞ্চয়ের অর্থ নিরাপদে যেমন রাখতে রাখবেন।ঠিক তেমনি কোন এক সময় সেই অর্থ আপনার কাজে লাগবে। বাংলাদেশে স্বাধীনতার পর অনেক ব্যাংক চালু হয়েছে তার মধ্য অন্যতম হল ইসলামী ব্যাংক

সময়ের সাথে অনেক গ্রাহক ইসলামি ব্যাংক গ্রাহকদের শতভাগ আস্থা অর্জন করেছে। অদূর ভবিষ্যতেও দেশের মানুষের ব্যাংকিং সেবা খাতে আস্থার প্রতিবিম্ব হয়ে উঠবে এই ব্যাংকটি। তাই আপনাদেরকে আজ ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম দেখানো হলো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex