vlxxviet mms desi xnxx

রেখাংশ কাকে বলে?

0

রেখাংশ কাকে বলে? | রেখাংশ এর বৈশিষ্ট্য

ছোট বেলায় অংকের হাতেখড়ি শিখতে গিয়ে শিখতে হয়েছে জ্যামিতিক নানা বিষয়। আর এই জ্যামিতিক বিষয় গুলো শিখতে গেলে প্রথমেই শিখতে হয়েছে জ্যামিতিক সম্পর্কিত কিছু সংজ্ঞা। যার মধ্যে একটি হচ্ছে রেখাংশ।

জ্যামিতিকের হাতেখড়ি শুরুই হয় এই রেখাংশ চেনার মাধ্যমে। রেখাংশ কাকে বলে এ যেনো জ্যামিতি এর একেবারে শূন্য থেকে শুরু করা। জ্যামিতি বুঝতে হলে রেখাংশ কাকে বলে, রেখাংশের বৈশিষ্ট্য কি এগুলো জানা অতীব জরুরী। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক, রেখাংশ কাকে বলে।

রেখাংশ কাকে বলে?

রেখাংশের জন্ম রেখা থেকে। রেখাংশ কে মূলত বলা হয় রেখার সসীম অংশ। যার দুইটি ভিন্ন প্রান্ত বিন্দু থাকে। আর এই প্রান্ত বিন্দু যুক্ত সীমাবদ্ধ সসীম অংশকে রেখাংশ বলে। এই প্রান্ত বিন্দুদ্বয়ের মধ্যবর্তী সকল বিন্দুই ঐ রেখাংশ এর উপর মূলত অবস্থিত থাকে।

রেখাংশ এর বৈশিষ্ট্য

রেখাংশ সম্পর্কে ধারণা না থাকলে জ্যামিতি সম্পর্কে খুব বেশি ভালো ধারণা বা বোধগম্য হয় না। সম্পাদ্য বা উপপাদ্য সম্পর্কে জানতে বা বুঝতে হলে কিংবা তা মনে রাখতে হলে রেখাংশ কাকে বলে যেমন জানতে হবে তেমনি জানতে হবে রেখাংশ এর বৈশিষ্ট্য। চলুন জেনে নেই, রেখাংশ এর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে।

আরো দেখুনঃ জ্যামিতি কাকে বলে?

  • রেখা থেকে রেখাংশ এর উৎপত্তি।
  • রেখাংশ এর দৈর্ঘ্য আছে।
  • রেখাংশ প্রস্থহীন।
  • রেখাংশ এর দৈর্ঘ্য সুপরিমাপ এবং সুনির্দিষ্ট হয়ে থাকে।
  • রেখাংশ এর দু’পাশেই দুটি প্রান্ত বিন্দু থাকে।
  • রেখাংশ সুনির্দিষ্ট হওয়ার কারণে একে কোনো দিকেই বাড়ানো যায় না।
  • রেখাংশ কে যদি একের অধিক ভাগ করা হয় তবে প্রতিটিই এক একটি রেখাংশ হয়ে থাকে।
  • রেখাংশ মূলত বাড়েও না আবার হ্রাসও পায় না।
  • রেখাংশ যেহেতু সসীম তাই এর প্রান্ত বিন্দু তে কোনো প্রকার তীর চিহ্ন ব্যবহার করা হয় না।
  • যদি রেখাংশ এর কোনো এক প্রান্তে তীর চিহ্ন ব্যবহার করা হয় তবে সেটি রশ্মি হয়ে যাবে।
  • আবার রেখাংশ এর দুই প্রান্তেই যদি তীর চিহ্ন ব্যবহার করা হয় তবে সেটি তখন সরল রেখা হয়ে যাবে।

এই ছিল রেখাংশ এর বৈশিষ্ট্য যা জ্যামিতি করার ক্ষেত্রে বা জানার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। জ্যামিতিতে রেখাংশ এর ব্যবহার অধিক। আর তাই রেখাংশ এর ব্যবহার এবং বৈশিষ্ট্য দুটোই জানা জরুরী।

রেখাংশ এর প্রকারভেদ

রেখাংশ কাকে বলে কিংবা রেখাংশ এর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জানা যেমন জরুরী তেমনি জানা প্রয়োজন রেখাংশ এর প্রকারভেদ নিয়ে। চলুন এবার জানি, রেখাংশ এর প্রকারভেদ সম্পর্কে। 

রেখাংশ মূলত ৩ প্রকার। যথাঃ

  1. বদ্ধ রেখাংশ।
  2. অর্ধখোলা রেখাংশ। এবং
  3. খোলা রেখাংশ।

এবার চলুন বিস্তারিত আলোচনা করা যাক। 

(০১) বদ্ধ রেখাংশঃ যে রেখাংশ তার দুটি প্রান্ত বিন্দুসহ তার উপর সকল বিন্দুকে ধারণ করে তাকে বদ্ধ রেখাংশ বলে।

(০২) অর্ধখোলা রেখাংশঃ যে রেখাংশ দুইটি প্রান্ত বিন্দুর মধ্যে যে কোনো একটিকে ধারণ করে তাকে অর্ধখোলা রেখাংশ বলে।

(০৩) খোলা রেখাংশঃ যে রেখাংশ তার উভয় প্রান্ত বিন্দু বাদে রেখাংশ এর উপর সকল বিন্দুকে ধারণ করে তাকে খোলা রেখাংশ বলে।

আরো দেখুনঃ

সবশেষে বলা যায়, জ্যামিতি বুঝার ক্ষেত্রে বা জানার ক্ষেত্রে রেখাংশ কাকে বলে বা এর বৈশিষ্ট্য গুলো জানা প্রয়োজন জ্যামিতির হাতেখড়ি শুরু করা থেকেই। এতে জ্যামিতি সম্পর্কে ভালো ধারণার পাশাপাশি সহজেই বোধগম্য হবে বলে আশা করা যায়। কারণ সম্পাদ্য হোক কিংবা উপপাদ্য এগুলো সঠিক ভাবে বুঝার জন্য রেখাংশ সম্পর্কে জানার বিকল্প নেই।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex