পরিবার কাকে বলে

0

পরিবার শব্দটির সাথে আমরা আমাদের জন্ম থেকেই পরিচিত। কতশত খুনসুটি অভিমান দায়িত্ববোধ কান্না হাসি মিলে একটি পরিবারের শক্ত খুঁটি তৈরি হয় তা আমরা কেউই আজকাল বুঝতে চেষ্টা করি না। আজকের আর্টিকেলটি জুড়ে থাকবে পরিবার কি পরিবার কাকে বলে ও পরিবারের বৈশিষ্ট্য সহ সকল বিষয়। 

পরিবার কাকে বলে?

পরিবার সমাজের সবচাইতে গভীর এবং পুরনো সামাজিক বন্ধন। পরিবারের গৃহকর্তা গৃহকর্ত্রীর আর তাদের সন্তান সন্তানদের নিয়ে গঠিত হয় পরিবার। পরিবারের সবচাইতে বড় শক্তি হল পরিবারের বৃদ্ধরা যারা পরিবারের শিকাড় হিসেবে কাজ করে। 

সমাজতন্ত্র বিদ ম্যাকাইভারের মতে, বৈবাহিক বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার মাধ্যমে সন্তান জন্ম দিয়ে লালন-পালন করার পরিকল্পনা যেখানে গঠন করা হয় তাকে পরিবার বলা হয়।

পরিবারের প্রকারভেদ?

পরিবার কাকে বলে জানার পর আমাদের জানা উচিত পরিবার কে কয় ভাগে ভাগ করা যায়। পরিবারকে আমরা দুই ভাগে ভাগ করতে পারি যৌথ পরিবার আর একক পরিবার। যৌথ পরিবার হচ্ছে সবাই একসাথে থাকা মা-বাবা ভাই-বোন দাদা-দাদি। একক পরিবার বলতে বোঝায় শুধু মা বাবা আর তাদের সন্তানরা । অতীতে মানুষ যৌথ পরিবারে বেশি স্বাচ্ছন্দ বোধ করলেও এখনকার সময়ে মানুষ একক পরিবার গঠন করছে।

যৌথ পরিবার কি? যৌথ পরিবার কাকে বলে

একান্নবর্তী পরিবার হল যৌথ পরিবার যেখানে মা, বাবা, ছেলে, মেয়ে, দাদু, ঠাকুমা, কাকা, কাকিমা, জেঠু, জেঠিমা, তাদের ছেলে- মেয়ে সবাই থাকে।

যৌথ পরিবারের উপকারিতা ও অপকারিতা

উপকারিতা:

  • যৌথ পরিবারে থাকলে আমরা সব সময় একে অপরের সাহায্য করতে দিতে পারি এবং ভোগ ও করতে পারি।
  • যৌথ পরিবারের থাকার ফলে পরিবারের সন্তানরা সঠিক শিক্ষায় বড় হয়।
  • যৌথ পরিবারের থাকার ফলে সব সমস্যার সমাধান মিলেমিশে করে নেওয়া যায়।

অপকারিতা:

  •  যৌথ পরিবারে একসাথে অনেক মানুষ থাকার কারণে ঝগড়া বিবাদ বেশি দেখা দেয়।
  • যৌথ পরিবারের সম্পদ বন্টন নিয়ে সব সময় ঝামেলা দেখা যায়।
  • যৌথ পরিবারের কখনো একা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা যায় না।

একক পরিবার কাকে বলে?

একক পরিবার হল স্বামী, স্ত্রী ও তাদের সন্তানদের নিয়ে যেই পরিবার গঠিত হয় তাকে বলা হয় একক পরিবার।

একক পরিবারের উপকারিতা এবং অপকারিতা

উপকারিতা:

  • একক পরিবারে আপনি আপনার সিদ্ধান্ত একাই গ্রহণ করতে পারবেন।
  • একক পরিবারে খরচ সব সময় কম হয়।
  • একক পরিবারের ঝগরা বিদ্বেষ কম থাকে।
  • একক পরিবারের সবার খাদ্য পুষ্টি গুণ সঠিকভাবে সম্পন্ন করা যায়।

 অপকারিতা:

  • একক পরিবারের মানুষ বেশিরভাগ সময়ে ডিপ্রেশনে ভোগে কারণ তাদের জীবন একাকিত্বের ঘিড়ে যায়।
  • একক পরিবারে লালন পালন করা বাচ্চারা সঠিকভাবে সামাজিক বন্ধন কে বুঝতে পারেনা।

পরিবারের বৈশিষ্ট্য

পরিবারর কাকে বলে এই উত্তরটি জানলেই পরিবারের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জানা যায় না আসুন একটি আদর্শ পরিবারের বৈশিষ্ট্য গুলো জেনে নেই।

পরিবারের বৈশিষ্ট্য

১. পরিবারকে সময় দেওয়া:

পরিবার হল একত্রে সবার বসবাস আর আপনি আপনার স্ত্রী আপনার মা- বাবা আপনার সন্তান কে যদি সঠিকভাবে সময় না দেন তাহলে আপনাদের মধ্যে পারিবারিক বন্ধন সৃষ্টি হবে না। তাই আদর্শ পরিবার গড়ে তুলতে অবশ্যই পরিবারকে পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে।

২. শৃঙ্খলা:

সমাজে একটি আদর্শ এবং সুখী পরিবার হতে হলে অবশ্যই পরিবারের সবাইকে শৃংখল হতে হবে। ছোট থেকেই আপনার পরিবারের সবাইকে শৃঙ্খলা গুলো মানিয়ে নিতে হবে আর এটি পরিবারিক শিক্ষার অন্যতম একটি ধাপ।

৩. ক্ষমা পূর্ণ মনোভাব:

একটি সুখী পরিবার তখনই তৈরি হয় যখন পরিবারের সবাই সবার প্রতি ক্ষমা পূর্ণ মনোভাব রাখে। একসাথে থাকলে অবশ্যই মনোমালিন্য হবে আর সেটি কি ভুলে আমাদের জীবন এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

৪. বিশ্বাস:

কথায় আছে বিশ্বাসের ওপর পুরো দুনিয়ার টিকে রয়েছে আর পরিবার কে টিকিয়ে রাখতে হলেও বিশ্বাস সূত্রের ব্যবহার অবশ্যই আপনাকে করতে হবে।

৫. নিরাপত্তা:

পরিবার কে সবাই সবচাইতে নিরাপদ স্থান মনে করে কিন্তু বর্তমানে পরিবারের কিছু কুরুচিপূর্ণ মানুষের কারণে পরিবারও আজকাল নিরাপদ নয়। তাই সব সময় সতর্ক থাকুন চোখ কান খোলা রাখুন।

আশাকরি পরিবার কাকে বলে পরিবারের বৈশিষ্ট্য গুলো আপনারা ভালভাবেই বুঝে গেছেন আর আজকের আর্টিকেলটির মাধ্যমে আয়ত্ত করে নিয়েছেন কিভাবে আপনি আপনার পরিবারকে চালাবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.