রসুনের উপকারিতা

0

রসুন এমন একটি জিনিস যা আমাদের খাবারকে মুখরোচক করে তুলে। এটি শুধু রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয় এমনটা নয় ইতিহাস ঘাটলে দেখা যায় চীন ,গ্রিক, মিসরীয়, ব্যাবিলনীয়, ও রোমান সাম্রাজ্যের বিশিষ্ট আয়ুর্বেদিক ডাক্তার রা আগে বিভিন্ন রোগ সারাতে রসুনের ব্যবহার করতেন। একটি রসুনের ভেতরে আপনি পেয়ে যাচ্ছেন থিয়ামিন, রিবোফ্লাবিন,প্যান্টোথেনিক অ্যাসিড,নায়াসিন,ফোলেট ও সেলেনিয়াম। এইসব কয়টি উপাদান আপনার শরীরের কে নানা ধরনের রোগ থেকে রক্ষা করে আসছে। আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা কাঁচা রসুনের উপকারিতা সহ এর নানান গুণাবলী সম্পর্কে জেনে নেব।চলুন শুরু করা যাক।

কাচা রসুনের উপকারিতা কি?

বলে রাখা ভাল রান্না করা রসুনের থেকে কাঁচা রসুন কয়েক গুণ বেশি ভিটামিন ও মিনারেল ভরপুর থাকে। আমরা এখন জানবো কাঁচা রসুনের উপকারিতা গুলো সম্পর্কে।

১. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি:

সকালে উঠে কাঁচা রসুন খাওয়া আপনার রোগ প্রতিরোধক সুরক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করতে পারে। রসুনের ভিতরে থাকা এন্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এনজাইম আমাদের রোগ থেকে সুরক্ষা দিয়ে থাকে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি লাগামহীন হওয়ার কারণে আমি আপনাকে সাজেস্ট করব প্রতিদিন দুই কোয়া কাঁচা রসুন সেবন করার জন্য এতে আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে আর আপনি করনা থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে রাখতে পারবেন।

২. উচ্চ রক্তচাপ কমাতে:

শরীরের এলডিএল এর পরিমাণ যখন বৃদ্ধি পায় তখন শরীরের রক্তচাপ বৃদ্ধি পেতে থাকে। প্রতিদিন সকালে যদি আপনি দুই কোয়া কাঁচা রসুন সেবন করতে পারেন তাহলে এটি আপনার শরীরের এলডিএলের পরিমাণ কে সমতায় রাখবে আর উচ্চ রক্তচাপ থেকে আপনাকে রেহাই দেবে।

৩. ফুসফুসের সুরক্ষায়:

ফুসফুসের সংক্রমণ খুবই কষ্টকর একটি বিষয় কারণ এতে আমরা সঠিকভাবে নিঃশ্বাস নিতে পারিনা। রসুন এর রস এই ক্ষেত্রে খুবই উপকারী কারণ খাবার সাথে সাথেই এটি ফুসফুসের সংক্রমণ রোধ করা শুরু করে দেয়। এই কারণেই করোনা রোগীদেরকে প্রতিদিন রসুনের রস সেবন করানো হয়।

৪. হাড় শক্ত করে:

শরীর যখন ইস্ট্রোজেনের স্বল্পতা তে ভোগে তখনই শরীরের হাড় গুলো নরম হতে শুরু করে দেয় আর এই সমস্যাটি দেখা দেয় বেশির ভাগ মহিলাদের। প্রতিদিন নিয়মিত যদি আপনি দুই কোয়া রসুন খেতে পারেন তাহলে রসুনে থাকা ইস্ট্রোজেন আপনার হাড় শক্ত করতে সহায়তা করবে।

৫. কোলেস্টেরল কমাতে:

পঞ্চাশোর্ধ বেশিরভাগ পুরুষ ও মহিলা কোলেস্টরেল জনিত সমস্যায় ভুগছেন আর ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন করা নানান পদের ওষুধ কিনে খাচ্ছেন। ওষুধ আপনার ক্ষতি করছে আবার উপকারও ।কিন্তু আপনার হাতের কাছে রসুন থাকতে আপনি কেন ওষুধ খাবেন। রসুনের শুধু মাত্র 2 থেকে 4 কোয়া যদি আপনি সকালে উঠে চিবিয়ে চিবিয়ে খান তাহলে আপনার শরীরের কোলেস্টেরল দুই মাসের মধ্যে কন্ট্রোলে চলে আসবে।

রসুনের উপকারিতা চুলের জন্য?

চুলের উপকারিতা রসুন খুবই কার্যকরী একটি মাধ্যম এবং বিজ্ঞান পরীক্ষিত ভাবে এখন এটি স্বীকৃতি লাভ করেছে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যারা রসুন সেবন করেন বা রসুনের রস মাথায় লাগান তাদের চুল পড়া কমে যায় এবং নতুন চুল গজিয়েছে। রসুনে থাকা জিংক ও কপারের চুলের গোড়ায় রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে যার কারণে আপনার চুল হয়ে ওঠে শক্ত মজবুত এবং শক্তিশালী।

রসুনের উপকারিতা চুলের জন্য?

গুরুত্বপূর্ণ: চুল ঘন করার উপায়

চুলে রসুন কে আপনি বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার করতে পারবেন আসুন কিছু ব্যবহার জেনে নেই।

১. রসুনের প্যাক:

ডিমের একটি সাদা অংশ, দই, অলিভ অয়েল ও 2 চা চামচ রসুনের রস ভালো মতো মিশিয়ে নেবেন এবং এরপর আপনার চুলের স্ক্যাল্পে এটি লাগাবেন। 30 মিনিট রাখার পর ধুয়ে ফেলবেন এবং এই প্রক্রিয়াটি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করতে হবে। এটি ব্যবহারের ফলে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে এবং নতুন চুল গজাবে।

২. রসুনের তেল:

এক বোতল নারিকেল তেল প্রথমে আপনাকে নিতে হবে তারপর সেই তেলের মধ্যে তিন থেকে চারটি রসুন কেটে কুচি কুচি করে দিয়ে দিবেন। অতঃপর হালকা আছে 5 থেকে 7 মিনিট গরম করে নেবেন। এরপর এই তিনটি আপনি মাথায় দিবেন এবং চার থেকে পাঁচ ঘন্টা পর অথবা একদিন পর আপনি শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিবেন। এই পদ্ধতিটি আপনাকে মাসে তিন থেকে চারবার ব্যবহার করতে হবে তাহলে আপনি কার্যকরী ফলাফল পাবেন।

৩. রসুনের কন্ডিশনার:

আপনি প্রথমে রসুনকে ভালোভাবে শুকিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পাউডার তৈরি করে নেবেন। এরপর যখন আপনি কন্ডিশনার ইউজ করবেন সেই কন্ডিশনার এর সাথে রসুনের পাউডার মিশিয়ে ইউজ করবেন। এটি আপনার জন্য খুবই কার্যকরী হবে কারণ একেতো এটি আপনার চুলের স্বাস্থ্য কে সুন্দর করবে এবং চুল পড়া পুরোপুরি কমিয়ে দিবে।

সেক্সে রসুনের উপকারিতা

সেক্সে  রসুনের উপকারিতা মানুষ  আদিকাল থেকেই উপভোগ করছে।  আসুন জেনে নেই রসুন সেবনের মাধ্যমে আমরা কি কি সেক্সুয়ালি দিকগুলোতে উপকার পেতে পারি। 

১. টেস্টোস্টেরন বৃদ্ধি:

সেক্স বিষয়টি ভালোভাবে এক্সপ্লোর করার জন্য টেস্টরেন হরমোনটি থাকা খুবই আবশ্যক কিন্তু এর পরিমান অনেকেরই কমে যায় যার কারণে সেগুলোতে তারা সঠিক ভাবে উপভোগ করতে পারে না। আপনি যদি কাঁচা রসুনের দুই কোয়া প্রতিদিন সেবন করতে পারেন এটি আপনার শরীরের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা খুবই তাড়াতাড়ি বৃদ্ধি করে দিতে পারবে।

২. বীর্য ঘন করা:

আমাদের সমাজের বেশিরভাগ পুরুষেরই এখন কমন সমস্যা বীর্য পাতলা হয়ে যাওয়া। এই সমস্যা থেকে ঘরোয়া পদ্ধতিতে রেহাই পেতে চাইলে প্রতিদিন অবশ্যই দুই কোয়া রসুন সেবন করুন কারণ রসুনের থাকা অ্যালিসিন বীর্যকে ঘন করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

৩. নারীর সেক্স বৃদ্ধি:

নারীদের বয়স 30 এর উপরে গেলে তাদের সেক্স এর পরিমাণ কমতে থাকে কারণ তখন তাদের শরীরে ইস্ট্রোজেন এর পরিমাণ কমে যায় ।আর এই ইস্ট্রোজেন বৃদ্ধির জন্য অবশ্যই আপনাকে রসুন সেবন করতে হবে।

৪. লিঙ্গ শক্ত হবে:

অনেকেরই লিঙ্গ শক্ত না হওয়ার সমস্যা টি আছে। অনেক ডাক্তার এর কাছে গিয়েও লাভ হয় নি। আমি আপনাকে বলবো আপনি রসুন খেয়ে দেখুন আপনার সমস্যার সমাধান অবশ্যই পেয়ে যাবেন। কারন রসুন আপনার রক্তচলাচল বৃদ্ধি করবে আর লিঙ্গ শক্ত করতে সাহায্য করবে।

৫. দ্রুত বীর্যপাত রোধে:

দ্রুত বীর্যপাত রোধে করতে হাজার হাজার টাকা খরচ করছেন কিন্তু কখনো কি আপনার ঘরে থাকা রসুন কে ব্যবহার করে দেখেছেন। অবশ্যই না। দ্রুত বীর্যপাত রোধে রসুন এর ব্যবহার আপনাকে দিবে ১০০% সফলতা।  রসুন আপনার বীর্যকে ঘন করবে আর আপনার দ্রুত বীর্যপাত বন্ধ হয় যাবে।

পরিশেষে বলতে চাই রসুন সব সময় আমাদের জন্য উপকারী ও রসুনের উপকারিতার শেষ নেই।  তাই আমাদের উচিত প্রতিদিন রসুন সেবন করা। 

Leave A Reply

Your email address will not be published.