vlxxviet mms desi xnxx

মাথার চুল ঘন করার উপায়

0

পাতলা চুল ঘন করার উপায়

আমাদের মাঝে এমন কেও নেই যে কি টেকো মাথা পছন্দ করে বা খুব কম চুল পছন্দ করে। চুল কতটুকু লম্বা এর চাইতে বেশি এটার প্রতি গুরুত্ব দেয়া হয় যে  চুল কতটা ঘন ও সুন্দর। শুধু নারীদের নয় পুরুষদের ও দরকার ঘন চুল কারণ টেকো মাথা পছন্দ করেন এমন কেও আছেন কিনা আমাদের জানা নেই। তাই সবাই চায় ঘন সুন্দর  চুল। কিন্তু চাইলেই তো কাজ হবে না, এর জন্য দরকার চুলের যত্ন। যাদের চুল ঘন করার উপায় জানা দরকার তাদের জন্য আজকের আমাদের এই পোস্ট। এই পোস্টে আরও জানতে পারবেনঃ
সামনের চুল ঘন করার উপায়,
মাথার চুল ঘন করার উপায়,
বাচ্চাদের চুল ঘন করার উপায়,
পাতলা চুল ঘন করার উপায়,
চুল ঘন করার তেল.

সামনের চুল ঘন করার উপায়

চুল ঘন করার উপায় যারা জানতে চান তাদের মাঝে বেশির ভাগই সামনে চুল কম এই সমস্যার ভুগেন। মাথার সামনের চুল ঘন করার কিছু কার্যকরী উপায় হচ্ছেঃ

আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: চুল পড়া বন্ধ করার উপায়

১) তেল ম্যাসেজ করা ঃ হাতের আংগুলে তেল নিয়ে মাথার সামনের অংশে সুন্দর মত ম্যাসেজ করুন (স্ক্যাল্পে) প্রায় ৫মিনিট ধরে ম্যাসেজ করতে থাকুন।(আপনার নিয়মিত ব্যাবহার করা তেল) আলতো হাতে ম্যাসেজ করবেন। জোরে টানবেন না।এতে আপনার চুলের গোরায় তেল ঠিকমতো পৌছাবে ও নতুন চুল গজাবে।
২)পেয়াজের রস ঃ মাথার সামনের চুল ঘন করতে ব্যাবহার করতে পারেন পেয়াজের রস। পেয়াজের রস ব্যাবহার করতে প্রথমে একটি পেয়াজ নিন।দেশি ঝাঝালো হলে বেশি ভালো হয়। পেয়াজটি ব্লেন্ড করে নিন অথবা পাটায় বেটে নিন। পরিস্কার কাপর এর গিটে পেয়াজের ব্লেন্ড করা পেস্ট টুকু নিয়ে চেপে রস বেরে নিন। সেই রস স্ক্যাল্পে ম্যাসেজ করে নিন।কয়েক ঘন্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলুন।পেয়াজের রস
৩)ক্যাস্টর ওয়েলঃ চুল ঘন করতে ক্যাস্টর ওয়েল এর জুরি মেলা ভার। চুল ঘন করতে ব্যাবহার করতে পারেন ক্যাস্টর ওয়েল।
ব্যাবহার বিধিঃ ক্যাস্টর ওয়েল খুবই ঘন তাই শুধু ক্যাস্টর ওয়েল ব্যাবহার করা যায়না এর সাথে আপনি তেল বা ভিটামিন ই ক্যাপসুল মিশিয়ে ব্যাবহার করতে পারেন। রাতে লাগিয়ে সকাল বেলা শ্যাম্পু করে ফেলুন। তবে প্রতিদিন লাগাবেন না।সপ্তাহে একদিন লাগান।
এবার আমরা জানবো মাথার চুল ঘন করার উপায় এ খানে যেসব পদ্ধতি  গুলো পড়বেন, তার মাঝে যেটাই ব্যাবহার করবেন সেটি সম্পুর্ন মাথায়ই ব্যাবহার করবেন নির্দিষ্ট কোনো অংশে নয়।
১) ডিম ব্যবহার করুনঃ আপনি যদি ডিমের দুর্গন্ধ সহ্য পারেন তবে আপনার জন্য সেরা প্যাক এটি।
প্রয়োজনীয় উপকরণ ঃ
 ১টি পরিস্কার পাত্র
 ১টি ডিম 
 মিক্সড করার জন্য হ্যান্ড  বিটার (বিটার না থাকলে যে কোন ভাবে কাজ করতে পারেন)।
প্রস্তুত ও ব্য্যাবহার প্রনালীঃ পরিস্কার পাত্রে ডিমটি ভেংগে  ভালোভাবে ফেটিয়ে নিই যাতে হলুদ অংশ ও সাদা অংশ পুরোপুরি মিশে যায়। এরপর চুল ভাগ ভাগ করে প্রথমে স্ক্যল্পে ও পরে আস্তে আস্তে অগ্রভাগে লাগিয়ে নিই।চুল শুকিয়ে গেলে একটি তোয়াল কুসুম গরম পানিতে ভিজিয়ে নিই, ভেজা তোয়াল ভালোভাবে না নিংরিয়ে সেই তোয়াল দিয়েই মাথা মুরিয়ে রাখি ২০-৩০ মিনিট। এতে চুল অনেক সফট হবে নতুন চুল গজাবে ও চুল লম্বা হবে।পাতলা চুল ঘন করার উপায় - ডিম ব্যবহার করুন
২) দুধ ও কলা মাখুনঃ প্রবাদে আছে দুধ কলা দিয়ে কাল সাপ পোষা কিন্তু শুধু কাল সাপ নয় কালো চুল এর জন্যই দুধ কলা প্রয়োজন। দুধের প্রোটিন আপনার চুলের প্রটিন এর চাহিদা মেটাবে। আসুন জেনে নিই দুধ কলার প্যাকটি।
প্রয়োজনীয় উপকরণ:
১টি কলা (পাকা কলা)
১কাপ দুধ 
কাচা(আগুনে তাপ দেয়ার আগে)দুধ ১কাপ 
প্রস্তুত প্রনালী: দুধের মাঝে ভালোকরে কলা মিশিয়ে নিতে হবে। প্রয়োজন এ কলা ব্লেন্ড করে নিতে পারেন। খুব ভালোমত মেশানো হয়ে গেলে মাথায় স্ক্যাল্প থেকে আগা পর্যন্ত ম্যাসেজ করি। ১ ঘন্টা পর ধুয়ে ফেলি এতে চুল সিল্কি হবে ও মজবুত হবে।
৩) লেবু ও তেলঃ মাথার সে ক্যাল্পে লেবু দিলেও চুল পড়া কমে যাবে ইনশাআল্লাহ। আসুন জেনে নিই ব্যাবহার প্রকৃয়া।
প্রয়োজনীয় উপকরণ:
লেবু,
একটি পরিস্কার পাত্র,
তেল,
প্রস্তুত প্রনালী: একটি পরিস্কার পাত্রে লেবু চিপে রস বের করে নিই।রসের সাথে নারিকেল তেল মিশিয়ে নিই।আস্তে আস্তে মাথায় লাগিয়ে নিই।কয়েক ঘন্টা পর ধুয়ে ফেলি।এতে মাথায় খুশকি থাকলে রোধ হবে।এবং চুল গজাবে।তবে এটি প্রতিদিন ব্যাবহার করবেন না তাহলে চুল রুক্ষ হবে আর ভুলেও শুধু লেবু দিবেন না অবশ্যই তেল মিশিয়ে দিবেন।চুলের যত্নে লেবু
৪)অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারীঃ পাতলা চুল ঘন করা যায় এর সঠিক ব্যবহার এর মাধ্যমে। এটি ব্যাবহার এর জন্য একটি অ্যালোভেরা পাতা থেকে চামচ বা ছুড়ির সাহায্যে এর জেলি অংশ টুকু আলাদা  করে নিন।  জেল-টাকে মসৃণভাবে পেস্ট করুন । এবার মাথার স্ক্যাপ্ল-এ ভালো করে ঘষে ঘষে লাগান লাগানোর পর ওইভাবেই  রাখুন প্রায় ১০-১৫ মিনিট।
তারপর চুল ধুয়ে ফেলুন ঠান্ডা পানি দিয়ে। এভাবে আপনি প্রতি সপ্তাহে ২ বার ব্যাবহার করতে পারেন। অ্যালোভেরা মাথার মৃত কোষ মেরামত করে চুলের গোড়া মজবুত করে এবং চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এটি চুলে ঘন করে। যারা চিন্তায় থাকেন কি ভাবে চুল লম্বা করা যায় তারা এটি ব্যাবহার করতে পারেন।
৫) মেথিঃ চুলের যত্নে মেথির ব্যাবহার চলছে যুগ যুগ ধরে।যারা চুল ঘন করার পাশাপাশি খুজছেন চুল লম্বা করার সহজ উপায় তারা মেথি ব্যাবহার করতে পারেন।
প্রয়োজনীয় উপকরণ:
মেথি (২টেবিল চামচ),
ব্লেন্ডার,
প্রস্তুত প্রনালী ও ব্যাবহার বিধি: আগের দিন রাতে ২টেবিল চামচ মেথি ভিজিয়ে রেখে দিই সারারাত ভর মেথি ভিজবে এর পর ভেজানো মেথির মাথে ১কাপ পানি যোগ করে ব্লেন্ড করে নিই।ব্লেন্ড করা হয়ে গেলে মাথায় লাগিয়ে ২ঘন্টা পর মাথার চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।এতে চুল লম্বা হবে।চুলের যত্নে আমলকি ও মেথি
এ ছাড়া মেহেদী পাতা,টক দই,আলুর পেস্ট ইত্যাদি লাগালেও আপনি পাবেন ঘন কালো ও মসৃন চুল। যারা জানতে চাচ্ছেন চুল লম্বা করার পদ্ধতি তারাও উপরের পদ্ধতি গুলো ব্যাবহার করতে পারেন। আর চুল লম্বা করতে কিছু সতর্কতা দরকার যেমনঃ 
১)ভেজা চুল বাধবেন না।
২)হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকাবেন না।
৩) সপ্তাহে ২বারের বেশি শ্যাম্পু দিবেন না।
৪) ভুলেও স্ক্যাল্পে কন্ডিশনার লাগাবেন না।
৫)রাতে চুল বেধে ঘুমান।
এ ছাড়াও নেশা করার অভ্যাস থাকলে তা বাদ দিতে হবে। এর সাথে দরকার পুস্টি কর খাবার ও সঠিক সময়ে ঘুম।
এ গুলো তো হলো বড়দের চুল ঘন করার সহজ উপায় /পাতলা চুল ঘন করার উপায় এবার জেনে নিই বাচ্চাদের চুল ঘন করার উপায়। 

বাচ্চাদের চুল ঘন করার উপায়

কিছু কিছু বাচ্চা আছে যারা কম চুল নিয়েই জন্মায়। এদের চুল পড়া না শুরু করলেও চুল থাকে পাতলা তাদের চুল ঘন করার  সহজ উপায় হলো তাদের পুস্টিকর খাবার দেয়া এছাড়াও প্রতিবার মাথার চুল ন্যাড়া করার পর ডিমের সাদা অংশ লাগিয়ে দিতে পারেন।আর বারবার ন্যাড়া করাবেন।এতে চুলও ঘন হবে আর মাথা কম ঘেমে যাবে।




চুল ঘন করার তেল

অনেকেই আবার জানতে চান চুল ঘন করার তেলের নাম কি! / কি তেল দিলে চুল লম্বা হয়!  তাদের জন্য আমি কিছু তেল সাজেস্ট করছি। তবে আপনারা ব্যাবহার করার পুর্বে অবশ্যই একজন হেয়ার স্পেশালিষ্ট এর সাথে আলোচনা করে নিবেন কারন সবার মাথার ত্বক এর ধরন এক নয়।
  • ১) বায়োটিক বায়ো ভৃঙ্গরাজ থেরাপিউটিক অয়েল ফর ফলিং হেয়ার (Biotique Bio Bhringraj Therapeutic Oil For Falling Hair)।
  • ২। ইবেদা হার্বালস নীভ ইনটেনসিভ হেয়ার গ্রোথ অয়েল (iVeda Nivr Intensive Hair Growth Oil)।
  • ৩)খাদি ন্যাচারালস হেনা অ্যান্ড রোজমেরি হার্বাল হেয়ার অয়েল (Khadi Natural Henna Rosemary Herbal Hair Oil)।
  • ৪)কেশ কিং।
  • ৫)অলিভ ওয়েল।
  • ৬)ক্যাস্টর ওয়েল।
সর্বশেষ টিপস: উপরের নিয়ম গুলো ফলো করুন এতে ১মাস পরেই চুলের পার্থক্য খুজে পাবেন।তবে উপরের নিয়ম ফলো করার পরেও যদি চুল লম্বা না হয় তবে আপনি আগে এটা খুজুন যে কোথায় সমস্যা হচ্ছে আর সেই মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহন করুন।
Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex