vlxxviet mms desi xnxx

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

0

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী | Chitra Express Train Schedule

যদি আপনি ঢাকা থেকে খুলনা পর্যন্ত ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করতে চান তাহলে আপনার জন্য উপযুক্ত একটি ট্রেন হবে চিত্রা আন্তঃনগর এক্সপ্রেস। কেননা আমাদের বাংলাদেশের যত প্রকার আন্তঃনগর ট্রেন রয়েছে তার মধ্যে চিত্রা এক্সপ্রেস হল ঢাকা থেকে খুলনা যাওয়ার জন্য জনপ্রিয় একটি আন্তঃনগর ট্রেন।

এই ট্রেনের মধ্যে আপনি মূলত ১২ টি বগি দেখতে পারবেন। এবং এই সব গুলো বগি তে মোট ৮৮১ টি সিট রয়েছে। উক্ত ট্রেনের মধ্যে আপনি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কেবিন পাবেন। এর পাশাপাশি আপনি এসি চেয়ার এর কামরা দেখতে পারবেন। তবে ঈদ কিংবা অন্যান্য পার্বণে যখন যাত্রী সংখ্যা বেশি হয়ে যায়। তখন এই চিত্রা এক্সপ্রেস এর বগীর সংখ্যা বাড়িয়ে দেওয়া হয়। আর এই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের নম্বর হলো ৭৬৩ এবং ৭৬৪.

মূলত একজন যাত্রী হয়ে আপনি যদি চিত্রা এক্সপ্রেস এর মাধ্যমে ঢাকা থেকে খুলনা অথবা খুলনা থেকে ঢাকা পর্যন্ত ভ্রমণ করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে জানতে হবে। আর আজকের আর্টিকেল টি মূলত চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী উল্লেখ করার জন্যই লেখা হয়েছে।

আরো দেখুনঃ অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম।

তাই আপনি যদি এই জনপ্রিয় আন্তঃনগর ট্রেন চিত্রা এক্সপ্রেস এর মাধ্যমে ভ্রমণ করতে চান। এবং চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন সম্পর্কে সকল প্রকার তথ্য জানতে চান। তাহলে আজকের এই আর্টিকেল টি আপনার জন্য অনেক বেশি প্রয়োজনীয়। তাই অবশ্যই আজকের এই পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ দিয়ে পড়ার চেষ্টা করবেন।

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

যদি আপনি ঢাকা থেকে খুলনা যাতায়াত করার জন্য চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন কে বেছে নেন। তাহলে অবশ্যই আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে জানতে হবে। কারণ আমরা সবাই জানি একটি ট্রেন নির্দিষ্ট সময় পর পর একটি স্টেশন থেকে আরেক টি স্টেশনে গমন করে। আর সে কারণেই মূলত একজন যাত্রী হিসেবে অবশ্যই আপনাকে এই ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। চলুন তাহলে এবার চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী জেনে নেয়া যাক।

যখন আপনি এই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মাধ্যমে ঢাকা হতে খুলনা পর্যন্ত যাতায়াত করবেন। তখন এই ট্রেন টি মূলত ঢাকা থেকে ছাড়বে ১৯:০০ মিনিটে। এবং এই ট্রেনটি ঢাকা থেকে ছাড়ার পরে খুলনায় পৌঁছাবে ০৩:৪০ মিনিটে। ঠিক একইভাবে আপনি যখন খুলনা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভ্রমণ করবেন তখন উক্ত ট্রেনটি খুলনা থেকে ছাড়বে ০৯:০০ মিনিটে। এবং এই ট্রেনটি ঢাকায় পৌঁছাবে ১৭:৫৫ মিনিটে।

আরো দেখুনঃ আজকের ট্রেনের সময়সূচী.

প্রিয় পাঠক, উপরের আলোচনায় আমি আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী কে উল্লেখ করেছি। তবে এই আলোচনা যদি আপনার বুঝতে সমস্যা হয়। তাহলে আমি আপনার বোঝার সুবিধার্থে নিচে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী কে টেবিল আকারে প্রদান করলাম। আপনি এই টেবিল থেকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন।

স্টেশন এর নাম সাপ্তাহিক ছুটির দিন ট্রেন ছাড়ার সময় ট্রেন পৌঁছানোর সময়
ঢাকা হতে খুলনা সোমবার 19:00 03:40
খুলনা হতে ঢাকা সোমবার 09:00 17:55

উপরে আমি আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী কে উল্লেখ করার পাশাপাশি। টেবিল এর মধ্যে এই সময়সূচী কে নিয়ে আলোচনা করেছি। তবে আপনি যদি এই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মাধ্যমে ঢাকা থেকে খুলনা কিংবা খুলনা থেকে ঢাকা ভ্রমণ করতে চান। তাহলে একটা কথা আপনার অবশ্যই জেনে রাখতে হবে। আর সেই কথাটি হলো যে, উক্ত ট্রেন টি মূলত সপ্তাহের ছয় দিন চলাচল করে। এবং প্রতি সপ্তাহের সোমবারে ছুটিতে থাকে।

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী

প্রিয় পাঠক, একজন যাত্রী হিসেবে আপনি যদি ঢাকা থেকে খুলনা পর্যন্ত ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করতে চান। তাহলে আপনার জন্য উপযুক্ত একটি ট্রেন হবে চিত্রা এক্সপ্রেস। উপরের আলোচনা থেকে আপনি চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। তবে এই সময়সূচী জানার পাশাপাশি আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। 

কারণ একটি ট্রেন যখন ঢাকা থেকে খুলনায় পৌঁছাবে। তখন এই ট্রেন কে আরো বিভিন্ন স্টেশনে বিরতি নেয়ার প্রয়োজন হবে। আর সে কারণেই আপনার অবশ্যই এই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। চলুন এবার তাহলে সেই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সুচি সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

বিরতি স্টেশন এর নাম খুলনা হতে ঢাকা ঢাকা হতে খুলনা
নওয়াপাড়া 09:31 02:52
যশোর 10:02 02:20
মোবারকগঞ্জ 10:47
কোট চাঁদপুর 11:00 01:41
দর্শনা 11:25
চুয়াডাঙ্গা 11:46 00:55
আলমডাঙ্গা 12:07 00:35
পোড়াদহ 12:24 00:16
মিরপুর 12:37
ভেড়ামারা 12:49 23:55
ঈশ্বরদী 13:15 23:15
চাটমোহর 13:48 22:44
বড়াল ব্রিজ 14:09 22:29
উল্লাপাড়া 14:30 22:09
শহীদ এম মনসুর আলী 14:49 21:51
বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব পাশে 15:45 21:15

প্রিয় পাঠক, চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন টি মূলত ঢাকা থেকে খুলনা এবং খুলনা থেকে ঢাকায় যাতায়াত করার সময়। যে সব স্টেশনে বিরতি নিবে, সেই বিরতি স্থান এবং সময়সূচি নিয়ে উপর একটি টেবিল প্রদান করা হয়েছে। আপনি এই টেবিল থেকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী সম্পর্কে জানতে পারবেন।

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

আপনি যদি বাংলাদেশের জনপ্রিয় এই আন্তঃনগর ট্রেন চিত্রা এক্সপ্রেস এর মাধ্যমে ঢাকা হতে খুলনা পর্যন্ত ভ্রমন করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত ফি প্রদান করতে হবে। তবে আপনি যদি চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে না জেনে থাকেন। তাহলে এবারের আলোচনা টি আপনার জন্য অনেক বেশি প্রয়োজনীয়। কারণ এবার আমি আপনাকে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে ধারণা দেয়ার চেষ্টা করব।

অন্যান্য সব ট্রেনের মত আপনি চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের আসন দেখতে পারবেন। মূলত এই আসন ভেদে ভাড়ার ক্ষেত্রেও অনেকটা পার্থক্য রয়েছে। চলুন এবার তাহলে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

আসন এর নাম টিকেটের মূল্য
শোভন চেয়ার 550/- টাকা
প্রথম সিট 670/- টাকা
প্রথম বার্থ 1005/- টাকা
স্নিগ্ধা 840/- টাকা
এসি সিট 1005/- টাকা
এসি বার্থ 1505/- টাকা

আপনি যদি চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মাধ্যমে ভ্রমণ করতে চান। তাহলে আপনাকে যে পরিমাণ টাকা ভাড়া দিতে হবে। সেই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা আমি উপরে প্রদান করেছি। আপনি এই তালিকা থেকে আপনার পছন্দমত আসন বাছাই করতে পারবেন। এবং এই আসন ভেদে আপনাকে টিকিটের মূল্য প্রদান করতে হবে।

চিত্রা এক্সপ্রেস যোগাযোগ

বাংলাদেশের অন্যান্য ট্রেন গুলো তে একজন যাত্রী হিসেবে আপনি ট্রেন কর্তৃপক্ষের সাথে সরাসরি ফোনে যোগাযোগ করতে পারবেন। তবে অন্যান্য ট্রেন গুলোর ক্ষেত্রে এই সুবিধা পেলেও। আপনি চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মাধ্যমে সরাসরি যোগাযোগ করার মতো কোনো সুযোগ পাবেন না। কেননা চিত্রা এক্সপ্রেস থেকে এরকম কোন নাম্বার শেয়ার করা হয়নি। যে নাম্বার গুলো তে আপনি ফোন করতে পারবেন। এবং তারা তাদের প্রয়োজন সমস্যার সমাধান করতে পারবে।

তবে পরবর্তী সময় যদি এই চিত্রা এক্সপ্রেস যোগাযোগ করার জন্য কোন নাম্বার শেয়ার করে। তাহলে অবশ্যই আমি আমার এই আর্টিকেলটি কে আপডেট করে দিবো।

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনে খাবারের ব্যবস্থা

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত জানতে চায় যে, চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনে খাবারের ব্যবস্থা আছে কিনা। তো যে মানুষ গুলো আসলে এই ধরনের প্রশ্ন করে থাকে। তাদের উদ্দেশ্যে বলবো যে, আপনি চাইলে আপনার প্রয়োজনীয় খাবার গুলো চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মধ্যে কিনে নিতে পারবেন। কেননা যাত্রীর পরিমাণ অনুযায়ী চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের মধ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবার মজুদ করে রাখা হয়। তাই আপনি আপনার প্রয়োজনে খাবার গুলো ট্রেনের মধ্যে থেকেই কিনে নিতে পারবেন।

আরো দেখুনঃ

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন নিয়ে কিছু কথা

প্রিয় পাঠক, আপনি যদি ঢাকা হতে খুলনা অথবা খুলনা হতে ঢাকা ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করতে চান। তবে আপনি চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের কে বেছে নিতে পারেন। কারণ এটি হল বাংলাদেশের অন্যতম একটি আন্তঃনগর ট্রেন। আর সে কারণে মূলত আজকের এই আর্টিকেলে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী এবং চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex