vlxxviet mms desi xnxx

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম | নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন

0
3/5 - (1 vote)

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম ২০২৩ | পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফরম

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যাঁরা জানেন না, পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম সম্পর্কে। তাহলে এই লেখাটি আপনার জন্য। বর্তমানে সব জায়গায় ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে। এখন অনেকের কাছ মনে হতে পারে, পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম হয়তো খুব কঠিন। তবে মোটেও নয়। আপনি কোনো প্রকার ঝামেলা ছাড়াই অনলাইনে আবেদন করলে, মাত্র ৩০ দিনের ভেতরেই বিদ্যুৎ ব্যবস্তা পাবেন। চলুন শুরু যাক তাহলে-

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফি কত?

অনেকে  ব্যস্ত থাকার কারণে নিজে কাজ না করে অন্য মানুষকে দিয়ে কাজ করান। তবে এক্ষেত্রে তারা আপনার কাছ থেকে প্রচুর বেশি টাকা আদায় করে। কিন্তু আসল কথা হলো, একজন লোক দিয়ে কাজ করালে তারা নিজেদের পারিশ্রমিক সহ একটু বেশি টাকা চাইবে এটাই স্বাভাবিক। নয়তো, আপনি অনলাইনে সহজে আবেদন করলে অল্প খরচেই সবটা সামলে নিতে পারবেন।

প্রথমবারের মতো আবেদন করতে গেলে আপনাকে ১১৫ টাকা প্রদান করতে হবে। এরপর, আপনাকে রশিদ প্রদান করা হতে পারে। এছাড়া যাবতীয় কাজ একজন দক্ষ ইলেকট্রিশিয়ান দ্বারা করিয়ে নেওয়া উত্তম।  আপনি সকল প্রকার কাজ করে ফেললে, আপনার বাসায় পল্লী বিদ্যুৎ থেকে যেকোনো একজন ইলেকট্রিশিয়ান আসবেন। তিনি এসে আপনার সব কিছু যাচাই-বাছাই করবেন, মিটার এই পরিবেশের সাথে সেট করা সামঞ্জস্য কিনা।

সবকিছু ভালকরে পর্যবেক্ষন করবেন। এরপর আপনার মিটার সেট করার জন্য ফি প্রদান করতে হবে। আর এজন্য সরকার কর্তৃক নির্ধারণ করা আছে ৪৫০ টাকা।  শুধুমাত্র এতটুকু খরচই করতে হবে, পল্লী বিদ্যুৎ এট মিটার আপনার বাড়িতে বসানোর জন্য।

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফরম

অনলাইনে পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফরমে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করলে, আর সাথে ফি পরিশোধ করে দিলে, অন্য কোনো ঝামেলা পোহাতে হয় না। নিচে পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম ও ফরম পূরণ করার উপায় দেখানো হল-

  • আপনার ফোন থেকে বা কম্পিউটার থেকে যেকোনো ওয়েবসাইটে  প্রবেশ করুন। 
  • সেখান থেকে rebpbs এ ভিজিট করে, মেনু অপশন সিলেক্ট করুন।
  • এরপর আবেদন বাটনে ক্লিক করুন।

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফরম

নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন

  • যে অপশন গুলোতে রেড মার্ক দেখাবে সেগুলো অবশ্যই ভরাট করা বাধ্যতামূলক। 
  • আপনি যেখানে বর্তমানে আছেন, অর্থাৎ যেখানে মিটার সেট করতে চাচ্ছেন, সেই অঞ্চলের ঠিকানা অনুযায়ী, পল্লী বিদ্যুৎ নিকটস্থ শাখা ও জোনাল অফিস সিলেক্ট করুন।
  • যদি একটি বাসা হয়, তাহলে, সেখানকার অপশন গুলোর মধ্যে থেকে এলটি-এ নির্বাচন করতে হবে। আর যদি ফ্ল্যাট হয়, মানে অনেকগুলো বাসা বাড়ি মিলে একটি বহুতল ভবন হয়, তাহলে নির্বাচন করুন এমটি-এ।
  • এরপর সেখানে আবেদন কারীর তথ্য জানতে চাওয়া হবে। আপনার নাম, আপনার বাবার নাম, আপনার মায়ের নাম জানতে চাইবে। তা বাংলায় লিখতে হবে। এরপর অন্যান্য যেসব তথ্য চাইবে, সেগুলো সঠিক ভাবে পূরণ করতে হবে।
  • এরপর আপনার স্থায়ী ঠিকানা লিখতে হবে। উপজেলা, জেলা, গ্রাম সবকিছু ঠিকঠাক প্রদান করতে হবে। 
  • আপনি যেখানে মিটার স্থাপন করবেন, সে জায়গার তথ্য দিতে হবে। সব তথ্য সঠিক প্রদান করা আবশ্যক। 
  • সার্ভিস পোল থেকে দূরত্ব-ও প্রদান করতে হবে। এটা ভালো ভাবে মেপে দেখতে হবে।
  • এরপর আপনি স্থায়ী নাকি অস্থায়ী মিটার নেবেন, তাও প্রদান করতে হবে।
  • লোড, ওয়াট সহ যেসব তথ্য চাইবে সবকিছু পূরণ করতে হবে।
  • এরপর আপনাকে প্রয়োজনীয় যাবতীয় ছবি আপলোড করতে হবে। ছবি গুলোর মধ্যে আপনাকে জাতীয় পরিচয় পত্রের ছবি, নিজের ছবি, খারিজ ইত্যাদি আবেদন করতে হবে।
  • এরপরে সেখানে কিছু শর্ত উল্লেখ করা থাকবে, আর শর্ত অনুযায়ী আপনি তাতে একমত, তা প্রকাশ করতে, সেখানে বাম দিকের টিক চিহ্নে ক্লিক করুন। 
  • সর্বশেষে এটা সেভ দিয়ে সংরক্ষন করে রাখুন। 

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম ২০২৩

আপনি ঘরে বসে সহজে মিটার আবেদন করতে পারবেন চাইল। উপরের বর্ণিত কাজগুলো করা হয়ে গেলে, পরবর্তীতে আপনাকে যেভাবে পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম করতে হবে তাহল: 

  • আপনি আবেদন এর ফর্মে সকল তথ্য সঠিক ভাবে দিয়ে তা সেভ করে রাখলে তা যাচাই করা হবে। 
  • এরপর আপনাকে ট্র্যাকিং নম্বর আর পিন নম্বর দেয়া হবে। এগুলো অবশ্যই সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। 
  • অতঃপর আপনার বাসার বৈদ্যুতিক ওয়ারিং সম্পর্কে নিশ্চিত করতে হবে। এর জন্য Menu অপশনে ক্লিক করে আবেদন > হাউজ ওয়্যারিং ক্লিক করতে হবে। 
  • এরপর আপনাকে ট্র্যাকিং ও পিন নম্বর দিয়ে মোমো নম্বর দিতে হবে। 
  • এবার সেখানে ক্যাপচা লিখে সেভ করলেই হবে।
  • এবার ফি পরিশোধ করতে হবে। আপনি চাইলে বিদ্যুৎ অফিসে গিয়ে নগদ পরিশোধ করতে পারবেন। আবার চাইলে আপনার নিজস্ব মোবাইল থেকে রকেটের মাধ্যমেও টাকা পরিশোধ করতে পারবেন। 

নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন

উপরোক্ত সব নিয়ম গুলো ঠিকঠাক ভাবে সম্পন্ন করলে, আপনি সহজেই অনলাইনে নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে পারবেন। তাই, বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে আপনি সহজে সবকিছু করতে পারবেন। 

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম -FAQ

  • পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফি কত?

পল্লী বিদ্যুৎ মিটার এক ফেজ আবেদন ফি মাত্র ১০০ টাকা।

  • পল্লী বিদ্যুৎ লাইনম্যান এর কাজ কি?

পল্লী বিদ্যুৎ লাইনম্যান প্রধান কাজ হল আপনার ঘরে বিদ্যুৎ নিশ্চিত করা। আপনার আমার ঘরের ভিতরে যে বাতি জ্বলছে এর পিছনে আছে লাইনম্যান। 

  • মিটার পরিবর্তন করতে কত টাকা লাগে?

মিটার পরিবর্তন করতে হলে সর্বপ্রথম আপনাকে বৈদ্যুতিক অফিসে যেতে হবে। সেখানে একটি আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে এবং সকল তথ্য পূরণ করে অফিসে জমা দিতে হবে। মূলত আবেদন ফরমের দাম হতে পারে ১২০ থেকে ১৫০ টাকা।

সর্বশেষ কথা: আজকের এই পোস্টে, পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করার নিয়ম, ফি, ফরম সব কিছু সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি আজকের এই লেখা থেকে আপনারা সঠিকভাবে জানতে পেরেছেন কীভাবে অনলাইনে পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন করতে হয়। 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex