vlxxviet mms desi xnxx

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

2

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

আপনি জানেন কি, বাংলাদেশে সর্বপ্রথম যে ব্যাংকটি ল্যান্ড করেছে সেটি হলো ডাচ বাংলা ব্যাংক। সুতরাং যুক্তি অনুযায়ী কিন্তু এই ব্যাংকটিই সর্বপ্রথম বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছে। বর্তমানে এই ব্যাংকটি দিচ্ছে ঘরে বসেই গ্রাহকের যেকোনো ব্যাংকিং সেবা কার্যক্রম পরিচালিত করতে পারার সুবর্ণ সুযোগ। সাথে এক্সট্রা সিকিউরিটির ব্যাপারটি তো থাকছেই।

আরো পড়ুন: রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে মূলত একটি ফরম পূরণ করতে হবে। প্রথমে আপনাকে এই বিষয়ে সিলেক্ট করে নিতে হবে যে আপনি আসলে ডাচ বাংলা ব্যাংকের কোন ধরনের একাউন্ট খুলতে চান। প্রয়োজনীয় সমস্ত ডকুমেন্ট জোগাড় করুন। ফরম পূরণ করে নিন। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই আপনি যে রেফারেন্সকৃত ব্যক্তির সহযোগিতায় একাউন্ট খুলতে চান, ওই ব্যক্তিকে সাথে নিয়ে যাবেন।

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে?

সাধারণত ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্টে থাকে দুই ধরণের একাউন্ট খোলার সুযোগ। যা এই সময়ে যথেষ্ট জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ভালো সেবার জন্য গ্রাহক একপ্রকার হুমড়ি খেয়েই তৈরি করছে ইচ্ছামতো যেকোনো একাউন্ট।

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে

ডাচ-বাংলা ব্যাংকের অধীনে আপনি যে দুই ধরণের একাউন্ট খুলতে পারবেন সে দুই ধরণের একাউন্টের নাম হলোঃ-

  • ডাচ বাংলা ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট।
  • ডাচ বাংলা ব্যাংক সেভিংস একাউন্ট।

উক্ত দুই ধরনের ডাচ বাংলা ব্যাংক অ্যাকাউন্টের জন্য আপনাকে অবশ্যই ভিন্ন ভিন্ন রকমের ডকুমেন্ট কতৃপক্ষকে প্রদান করতে হবে। পাশাপাশি একাউন্ট খোলার কাজ সম্পাদন করতে হবে।

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

ডাচ বাংলা ব্যাংক এর অধীনে একটি স্টুডেন্ট account এর জন্য যে যে ডকুমেন্টস লাগবে সেগুলি হলোঃ- 

  • ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি।
  • আপনার সর্বশেষ স্কুল,কলেজ সার্টিফিকেট কিংবা ভর্তির ফরম অথবা বেতনের যেকোনো একটি সিট। (মনে রাখতে হবে এক্ষেত্রে আপনি যদি অনার্স পড়ুয়া স্টুডেন্ট হোন তাহলে; উক্ত ডাচ বাংলা ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট আপনার জন্য প্রযোজ্য হবে না।)
  • একাউন্টের কার্যক্রম শুরু করার জন্য আপনার একজন নমিনি এর প্রয়োজন হবে। যাতে করে আপনার  মৃত্যুর পর উনি টাকা তুলতে পারে।(এক্ষেত্রে লাগবে নমিনি হিসেবে নির্বাচন করা ব্যাক্তির এনআইডি কার্ড এবং এক কপি ছবি)
  • রেফারেন্সের জন্য পূর্বে যার ডাচ-বাংলা এর অধীনে ব্যাংক একাউন্ট ছিল; সেই রকম একজন ব্যক্তির প্রয়োজন হবে। সে আপনার রেফারেন্স হিসেবে কাজ করবে। (এক্ষেত্রে অবশ্যই ওই ব্যক্তির এনআইডি কার্ড এবং এক কপি ছবি প্রয়োজন হবে)

এবার আসা যাক ডাচ বাংলা ব্যাংক এর অধীনে একটি সেভিংস একাউন্ট খুলতে কি কি লাগবে সে সম্পর্কেঃ- 

  • প্রথমত আপনার দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবির প্রয়োজন হবে। 
  • ব্যবসা করলে আপনি আপনার যেকোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স এর একটি কপি তাদেরকে দিবেন। 
  • অবশ্যই আপনার ভোটার আইডি কার্ড এর ফটোকপি তাদেরকে দিতে হবে।
  • যাকে আপনি নমিনি হিসেবে নির্বাচন করতে চান তার এনআইডি কার্ডের ফটোকপি এবং সাথে ঐ ব্যক্তির এক কপি ছবি লাগবে।
  • রেফারেন্স হিসেবে নির্বাচিত ব্যক্তির এনআইডি কার্ডের ফটোকপি এবং তার একটি ছবি আপনাকে দিতে হবে।

উল্লেখিত ডকুমেন্টগুলো নিকটস্থ ব্রাঞ্চে প্রদান করলেই আপনি একাউন্ট খোলার জন্য আবেদন করতে পারবেন। 

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট ব্যালেন্স চেক

ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনি আপনার ব্যালেন্স চেক করার সুযোগ পাবেন। মূলত ৩ টি উপায়ে আপনি আপনার ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন। সেগুলি হলোঃ-

নিকটস্থ এটিএম বুথঃ

ব্যালেন্স চেক করার সময় ডাচ-বাংলা ব্যাংকের যে নেক্সাস পে কার্ড রয়েছে সেটি নিয়ে যেতে হবে। তারপর এটি এটিএম বুথে লোড করতে হবে। পরবর্তীতে আপনার একাউন্টের পাসওয়ার্ড দেয়ার জন্য রিকমেন্ড করবে এবং এখানে আপনার নেক্সাস পে কার্ড এর পাসওয়ার্ড দিয়ে তারপর একসেস নিতে হবে। পাসওয়ার্ড দেওয়ার পরে এটিএম বুথ এর বাম পাশে থাকা ব্যালেন্স স্টেটমেন্ট এর পাশে থাকা বাটনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর আপনার অ্যাকাউন্টের স্টেটমেন্ট দেখতে পারবেন। 

ডাচ বাংলা ব্যাংক ইন্টারনেট ব্যাংকিং একাউন্টঃ

এক্ষেত্রে আপনাকে ইন্টারনেট ব্যাংকিং একাউন্ট খুলতে হবে। প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে লগইন করা সম্পন্ন হয়ে গেলে আপনি আপনার অ্যাকাউন্টের সমস্ত মিনি স্টেটমেন্ট দেখতে পারবেন।

ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপসঃ

প্রথমে অফিশিয়াল নেক্সাস পে অ্যাপস টি ডাউনলোড করে নিন। ডাউনলোড হলে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্টেটম্যান্ট দিয়ে একটি অ্যাকাউন্ট ওপেন করে নিতে হবে। পরবর্তীতে অ্যাপটিতে আপনি আপনার অ্যাকাউন্ট নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করার পর খুব সহজেই আপনি আপনার ডাচ বাংলা ব্যাংক এর account ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন। 

ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট দেখার নিয়ম

ঘরে বসেই আপনি যদি ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট দেখতে চান তাহলে ইন্টারনেট ব্যাংকিং একাউন্টের মাধ্যমে দেখে নিতে পারেন। নিয়মগুলি উপরে দেওয়া আছে। 

সেভিংস একাউন্ট এর সুবিধা

সেভিংস একাউন্টের কিছু কার্যকরী সুবিধা হলোঃ- 

  • একক বা যৌথভাবে একাউন্ট পরিচালনার সুযোগ
  • লেনদেনের অনুমিত মাত্রা অনুযায়ী টাকা উত্তোলন 
  • অবাধ লেনদেনের নিরাপদ সুবিধা
  • ঘরে বসেই এসএমএস ও ইন্টারনেট ব্যাংকিং সুবিধা
  • প্রতিদিন সর্বোচ্চ ২ লক্ষ টাকা এটিএম হতে উত্তোলনের সুযোগ। 

শেষকথা: বর্তমানে সাধারণ গ্রাহক, স্টুডেন্ট কিংবা যে কোনো রকমের বিজনেসম্যানের জন্য ডাচ বাংলা ব্যাংক একটি পারফেক্ট এবং নিরাপদ ব্যাংক হিসেবে বহুল আলোচিত। বর্তমানে বিভিন্ন ব্যাংকিং সুবিধালাভের লোভে অনেকেই উক্ত ব্যাংকে নিজের একাউন্ট খুলছে। আপনিও যদি এই দলে পড়েন, তবে আজকের এই ডাচ বাংলা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম পুরো আর্টিকেলটি ছিলো আপনার জন্য। আশা করি উপকৃত হবেন।

2 Comments
  1. jahid hasan munna says

    saving accaount

  2. Obaydur Rahman says

    ধন্যবাদ প্রয়োজনীয় তথ্য তুলে ধরার জন্য।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex