vlxxviet mms desi xnxx

নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি ২০২১

0

নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি ২০২১

বর্তমানে ডিজিটাল লেনদেন সেবা বিভিন্ন ডিজিটাল প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছে। বাংলাদেশ সরকারের ডাক বিভাগের আওতায় একটি ডিজিটাল আর্থিক সেবার নাম হচ্ছে নগদ। ২০১৮  সালের নভেম্বর মাসের নগর প্রতিষ্ঠান যাত্রা শুরু হয়, তবে বর্তমানে এখন নগদ খুব জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এর সেবা ও জনপ্রিয়তা বিকাশ এর মতই। 

টেলিভিশনের পর্দা দেখলে অথবা যেকোনো অনলাইনে ওয়েবসাইটে ঢুকলে নগদের অ্যাড দেখা যায়। এড দেখে আমাদের মনে কৌতূহল জাগে নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি সম্পর্কে। আজকে আপনাদের মাঝে নগদ একাউন্ট নিয়ে যত প্রশ্ন আছে সবগুলোই আমরা দিতে চেষ্টা করব। চলুন তাহলে নগদ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

ডিজিটাল লেনদেন  আপনার মোবাইলে খুব সহজেই করতে পারবেন। যাকে আমরা মোবাইল ব্যাংকিং হিসেবে জানি। বিশ্বজুড়ে মোবাইল ব্যাংকিং এর জনপ্রিয়তা এত পরিমানে বেড়েছে যে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে। আর এখন বর্তমানে নগদ সেবা এতটাই সহজ যে মানুষ নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি জানার জন্য উৎসাহিত হচ্ছে। নগদ একাউন্ট খোলার জন্য আপনি নগদ উদ্যোক্তা বা এজেন্টের মাধ্যমে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন, এর পাশাপাশি আপনি ঘরে বসে নিজেও নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

আরো দেখুন: নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেম

এজেন্ট অথবা কোন নগদ উদ্যোক্তা ছাড়াই আপনি বাসায় বসে নগদ অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন। যে পদ্ধতি গুলো অবলম্বন করে আপনি নগদ একাউন্ট খুলবেন তা হচ্ছেঃ-

নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

  • অ্যাপ ডাউনলোড করে ওপেন করার পর প্রয়োজনীয় নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। 
  • জাতীয় পরিচয় পত্রের উভয় পিঠের ছবি আপলোড করতে হবে। 
  • একটি সেলফি তুলে একাউন্টের যুক্ত করতে হবে। 
  • নগদ অ্যাপের কর্তৃক কিছু টার্মস এন্ড কন্ডিশন আছে ওগুলো ভালো করে পড়ে নিতে হবে। 
  • 4 ডিজিটের পিন সেট করতে হবে। 
  • আপনার পিনটি পুনরায় টাইপ করে কনফার্ম হতে হবে। (অবশ্যই এই পিনটি কারো সাথে কখনো শেয়ার করবেন না, কোনো নগদ এজেন্ট অথবা উদ্যোক্তার কাছেও না। )
  • আপনি যদি মুনাফা পেতে চান তাহলে ১ চাপতে হবে আর যদি না চান তাহলে ২ চাপতে হবে। 
  • কিছুক্ষণের মধ্যে নগদ কর্তৃক আপনাকে কনফার্মেশন মেসেজ পাঠাবে। এবং সেই সাথে আপনার নগদ একাউন্ট খোলা সম্পন্ন হয়ে যাবে।

অ্যাপ ছাড়া কি নগদ একাউন্ট খোলা যাবে? হ্যাঁ, যাবে।আপনি নিজে বা নগদ এজেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম হচ্ছেঃ-

  • আপনার মোবাইল থেকে *১৬৭# ডায়াল করুন। 
  • প্রযোজ্য শর্তাবলী ভালো করে পড়ে নিয়ে সম্মতি জানাতে হবে। 
  • মোবাইল নাম্বার এবং মোবাইল নাম্বার এর কোম্পানি সিলেক্ট করুন। 
  • 4 ডিজিটের পিন সেট করতে হবে। 
  • পুনরায় আপনার পিনটি সেট করে কনফার্ম হয়ে নিতে হবে। (অবশ্যই এই পিনটি কারো সাথে কখনো শেয়ার করবেন না, কোনো নগদ এজেন্ট অথবা উদ্যোক্তার কাছেও না। )
  • এখন আপনি যদি মুনাফা দিতে ইচ্ছুক হন তাহলে এক চাপতে হবে আর না নিতে চাইলে 2 চাপতে হবে। 
  • সর্বশেষে একটি কনফারমেশন মেসেজ এর মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার নগদ একাউন্ট চালু হয়েছে।

এভাবে আপনি আপনার নগদ একাউন্ট চালু করপে পারবেন এবং খুব সহজেই নগদ এর মোবাইল ব্যাংকিং সেবা নিতে পারবেন। 

নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

আপনার নগদ একাউন্ট দেখার জন্য আপনাকে কোন এজেন্ট এর কাছে যেতে হবে না। আপনি নিজেই খুব সহজে দেখতে পারবেন।  যেকোনো সময় মোবাইল থেকে নগদ একাউন্ট দেখার  জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছেঃ-

  • মোবাইল থেকে *১৬৭# ডায়াল করুন। 
  • এরপর ৭ লিখে সেন্ড করে My Nagad অপশনে প্রবেশ করুন।
  • ১ লিখে সেন্ড করে Balance Inquiry অপশনে প্রবেশ করুন। 
  • সর্বশেষ আপনার নগদ একাউন্টের পিন কোড দিয়ে সেন্ড করুন। 

এখন আপনার ফোনের স্ক্রিনে আপনার নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে পাবেন।

এছাড়াও আপনি আপ থেকে  নগদ একাউন্ট ব্যালেন্স দেখার নিয়ম একই ভাবে দেখতে পারবেন। 

  • প্রথমে নগদ অ্যাপটি ইন্সটল করুন এবং অ্যাপটিতে প্রবেশ করুন।
  • সঠিক পিন দিয়ে অ্যাপে লগিন করুন।
  • ব্যালেন্স চেক করলেই আপনি দেখতে পাবেন আপনার ব্যালেন্স এবং অন্যান্য সেবা নিতে পারবেন।

এভাবে আপনারা স্মার্ট বা বাটন মোবাইলে নগদ একাউন্ট দেখতে পাবেন।

নগদ একাউন্ট দেখার কোড

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং থেকে যেকোনো সেবা পেতে আপনাকে অবশ্যই নগদ একাউন্ট কোড জানতে হবে। এই কোডের মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যালেন্স জানতে পারবেন, বিল প্রদান করতে পারবেন, অর্থ আদান-প্রদান করতে পারবেন। এই কোডটি নগদ এর অফিশিয়াল একাউন্ট কোড। এটির মাধ্যমে আপনি আপনার সকল সেবা নিতে পারবেন নগদ থেকে।

নগদে লেনদেন থেকে পিন পরিবর্তন সকল কিছু সম্ভব এই কোড দ্বারা। নগদ এর অফিশিয়াল কোডটি হচ্ছে *১৬৭#

নগদ একাউন্টের সুবিধা ২০২১ – নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

আপনি নগদ একাউন্ট করার পর নগদ থেকে নগদ একাউন্টের সুবিধা ২০২১ নিম্নরুপঃ-

নিরাপত্তা

অর্থ লেনদেন ব্যবস্থায় সবার আগে নিশ্চিত করতে হয় নিরাপত্তাকে। আর নগদ তাঁর গ্রাহকদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা প্রদান করে। কারন নগদ একটি সরকারি সেবা প্রতিষ্ঠান। তাই এটি অধিকতর নিরাপদ। 

অপেক্ষাকৃত কম চার্জ 

অধিকতর কম খরচে সেবা প্রদান করে নগদ। যেমনঃ অন্যান্য এজেন্টদের তুলনায় নগদ এ ক্যাশ আউট ফি কম নেয়।

অফার

নগদ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অফার প্রদান করে থাকে যা তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে দেয়া হয়। নগদ ক্যাশ ইন অফার, নগদ একাউন্টের অফার বা নগদ একাউন্টের লাখপতি সহ সকল অফার তথ্য নগদ ওয়েবসাইটে পেয়ে যাবেন।

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে

নগদ একাউন্টের পিন বা পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন? বা নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেছি। কোন চিন্তা করবেন না। আমরা আছি আপনার এই সমস্যা সমাধানের জন্য । আপনার নগদ একাউন্টের পিন বা পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে খুব সহজেই তা উত্তোলন করতে পারবেন। 

অনেক সময় আপনি আপনার বিভিন্ন কারণে নগদ একাউন্টের পিন বা পাসওয়ার্ড ভুলে যেতে পারেন। অথবা আপনার পাসওয়ার্ডটি পাবলিক হয়ে গিয়েছে। এক্ষেত্রে আপনি সাথে সাথে আপনার নগদ এর কাস্টমার কেয়ারে কল দিয়ে কথা বলতে হবে।

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে

  • প্রথমে আপনাকে নগদ কাস্টমার কেয়ারে কল দিতে হবে। নগদ কাস্টমার কেয়ারের নাম্বার হচ্ছে 16167
  • তার আগে অবশ্যই আপনার খেয়াল রাখতে হবে আপনি যে নাম্বার দিয়ে ফোন করেছেন সেই নাম্বারে নগদ একাউন্ট খোলা হয়েছে কিনা। 
  • এরপর আপনি আপনার সমস্যার কথা কাস্টমার কেয়ারে হেল্পলাইনে বলতে হবে।
  • তারপর আপনার পিন বা পাসওয়ার্ড রিসেট এর জন্য রিকোয়েস্ট পাঠাতে হবে। 
  • এক্ষেত্রে আপনি সেই নগদ একাউন্ট এর আসল ব্যক্তি কিনা সেটি ভেরিফাই করার জন্য আপনার কাছ থেকে কিছু তথ্য নেয়া হবে। যেমনঃ আপনার বাবা মায়ের নাম, আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড নাম্বার, জন্ম তারিখ এবং ঠিকানা। (তবে এখানে লক্ষ্যনীয় যে, আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ডের তথ্য যেভাবে আছে সেভাবেই বলতে হবে নতুবা তারা আপনার ডকুমেন্টের কোন তথ্য ভুল হলে তারা আপনাকে সাহায্য করবে না।)
  • এরপর নগদ একাউন্ট এর সর্বশেষ লেনদেনের পরিমাণ জানতে চাওয়া হবে। যা আপনি আপনার মোবাইল নাম্বারে মেসেজ থেকে জানতে পারবেন। 
  • আপনি ভেরিফিই হলে আপনার ফোনে নগদ থেকে একটি ম্যাসেজ আসবে। সেই মেসেজে একটি টোকেন কোড থাকবে। সেই কোডটি আপনার নগদ অ্যাপ এ ব্যবহার করলে আপনি নতুন পাসওয়ার্ড দিতে পারবেন। 

কোডটি যে ভাবে বসাবেন এবং নতুন পিন সেট করবেন তা হচ্ছেঃ

  • প্রথমের ছয় সংখ্যার কোডটি কপি করতে হবে। 
  • তারপর *১৬৭# এ  ডায়াল করতে হবে বা আপনার মোবাইল নগদ অ্যাপ ওপেন করতে হবে।
  • Enter the new pin নামে একটি অপশন আসবে সেখানে ছয় সংখ্যার কোড দিতে হবে। 
  • এরপর সেখানে আরও একটি অপশন আসবে সেখানে নতুন পিন বা পাসওয়ার্ড চাইবে। 
  • সেখানে নতুন পিন বা পাসওয়ার্ড সেট করে নিতে হবে। (পাসওয়ার্ড ৪ সংখ্যার হবে) 
  • পুনরায় আবার পাসওয়ার্ড বা পিন চাইবে সেটি দিয়ে কনফার্ম হয়ে নিতে হবে।

এভাবে আপনি আপনার হারিয়ে যাওয়া পাসওয়ার্ড অথবা পাবলিক হওয়া পাসওয়ার্ড কে পুনরায় সেট করতে পারবেন। 

অবশ্যই আপনাকে আপনার পিন বা পাসওয়ার্ড মনে রাখতে হবে এবং কাউকে শেয়ার করা যাবে না।

নগদ ব্যবহারে নিরাপদ থাকার উপায়

পৃথিবী যত আধুনিক হোক না কেন অসৎ লোকের অসৎ কাজ আরও বৃদ্ধি পায়। তাই নগদ গ্রাহকদের নিতাপত্তা দেয়ার জন্য গ্রাহকদের কিছু ক্ষেত্রে সতর্ক করে দিয়েছেন তা হচ্ছেঃ

  • নগদ কখনো গ্রাহকের কাছে ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড (OTP) বা একাউন্টের পিন বা পাসওয়ার্ড জানতে চাইবে না। যদি কখনো কেউ (OTP) বা একাউন্টের পিন বা পাসওয়ার্ড জানতে চায় তাহলে দরে নিতে হবে আপনি অসৎ লোকের সাথে কথা বলছেন। 
  • নগদ শুধুমাত্র এই দুইটি নাম্বার থেকেই নগদ ব্যবহারকারীদের সাথে যোগাযোগ করবে। সেগুলো হচ্ছে ১৬১৬৭ বা ০৯৬ ০৯৬ ১৬১৬৭। এগুলো ছাড়া অন্য কোন নাম্বার দিয়ে কল আসলে দরে নিতে হবে এটি কোণো অসৎ চক্রের কাজ। 
  • নগদ এর পরিচয় দিয়ে কেউ টাকা চাইলে দিবেন না।
  • নগদ কর্তৃক লটারি পেয়েছেন এমন কিছু শুনলে বিশ্বাস করবেন না। কারন নগদ কর্তৃক আপনাকে অর্থ প্রদান করলে তা আপান্র একাউন্টে প্রদান করা হবে। কোণো ব্যক্তি মোবাইল করে জানাবে না। 

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি

আমার নগদ একাউন্ট বন্ধ করতে চাইলে নগদ হেল্পলাইনের যোগাযোগ করতে হবে। নগদ একাউন্ট বন্ধ করার পদ্ধতি হলঃ

  • ১৬১৬৭ নাম্বারে কল দিবেন।
  • নির্দিষ্ট কারন প্রদান করে একাউন্ট বন্ধ করার আবেদন করতে হবে।

নগদ একাউন্ট ব্যবহারের শর্তাবলি

আপনি যদি নগদ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে আপনাকে নগদ একাউন্ট তৈরীর পুর্বে নগদ এর কিছু শর্ত যেনে নিতে হবে। নতুবা আপনার একাউন্ট তৈরিতে সমস্যা হতে পারে। নগদ একাউন্ট নিবন্ধন বা রেজিস্ট্রেশন এর ক্ষেত্রে যেসব শর্তাবলি রয়েছে সেগুলো হলোঃ

  • নগদ এর গ্রাহককে সকল নীতিমালা বাধ্যতামূলকভাবে মানতে হবে। কারন দেশে প্রচলিত আইন ও ডাক বিভাগ প্রচলিত ধারাসমুহ অনুসরণ করে নগদ এর কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
  • ভুল নাম্বার প্রদান করার ফলে গ্রাহক কোনো ধরনের আর্থিক ক্ষতির স্বীকার হলে তার দায় নগদ বহন করবে না।
  • নগদ একাউন্টের সকল লেনদেনের ক্ষেত্রে চার্জসমুহ সকল গ্রাহকের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক। এবং পর্যাপ্ত ব্যালেন্সের অভাবে লেনদেন না করতে পারলে  তার দায়ভার সম্পূর্ণ গ্রাহককে নিতে হবে।
  • সকল ক্যাশ ইন/ ক্যাশ আউট/ পেমেন্ট ইত্যাদি ক্ষেত্রে গ্রাহককে তার লেনদেনের গ্রহণযোগ্যতা যাচাই করে নিতে হবে। এই ধরনের কোনো অভিযোগ এর দায় নগদ বহন করবে না।
  • নগদ ব্যবহার করে লেনদন সম্পর্কিত অর্থ প্রদান করার আগে যথাযথ নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে। যদি ভুল তথ্য প্রদানে করা হয়, আর এর ফলে ক্ষতির সম্মুখীন হন কিংবা কোনো ধরনের প্রতারণার স্বীকার হন তাহলে নগদ তার দায়ভার বহন করবে না।
  • নগদ ব্যবহার করার ফলে নগদ নিজে গ্রাহকের কাছ ছেকে সকল লেনদেন  সম্পর্কিত মূল্য ও ব্যয় নিয়মানুযায়ী একাউন্ট থেকে সময়মত কেটে নিবে।
  • মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন-২০১২, সন্ত্রাস বিরোধী আইন-২০০৯, বাংলাদেশ ডাক বিভাগ কর্তৃক জারিকৃত নীতিমালা অনুযায়ী  গ্রাহক তার নগদ সম্পর্কিত সকল তথ্য চাহিবা মাত্র নগদকে প্রদান করতে বাধ্য। 
  • গ্রাহকের একাউন্ট ও লেনদেন সংক্রান্ত সকল তথ্য গোপনীয়তা বজায় রাখবে নগদ৷ তবে প্রয়োজনে  আদালতের আদেশ অথবা আইন অনুযায়ী অনুমোদিত কোন ব্যক্তির তথ্য প্রকাশ বা প্রদান করতে পারবে নগদ।
  • কোনো গ্রাহক তার নগদ একাউন্ট এর পিন নাম্বার বা পাসওয়ার্ড কখনো কারো কাছেই কোনো অবস্থাতেই প্রকাশ করতে পারবেন না। যদি পিন নাম্বার এর গোপনীয়তা নষ্ট হয়, তাহলে কোনো ধরনের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন এর দায়ভার সম্পূর্ণভাবে গ্রাহকের নিজের। এর দায়ভার নগদ নিবে না।
  • সিম বা ফোন হারিয়ে গেলে তৎক্ষনাৎ নগদ হেল্পলাইনে (16167) কল করে একাউন্ট বন্দ্ধ করে দিতে পারেন বা পিন পরিবর্তন করে নিতে পারেন।
  • একজন নগদ গ্রাহক নগদ নীতিমালা বহির্ভূত নগদ সম্পর্কিত কোনো কাজ করলে আর  নগদ এর দৃষ্টিগোচর হলে সেক্ষেত্রে নগদ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া ক্ষমতা রাখেন।
  • নগদ তার প্রচার কাজ পরিচালনার জন্য গ্রাহকের কাছে ফোন কল কিংবা এসএমএস এর প্রেরণের সম্পূর্ণ অধিকার রাখেন। 

উপসংহার: বর্তমানে বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রচলিত এবং জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা হচ্ছে নগদ। নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে আপনি আপনার আর্থিক লেনদেন সঠিক এবং নিরাপদে করতে পারবেন। নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি অনেক সহজ এবং মানুষ কিছুক্ষণের মধ্যেই ধরনের এই নগদ একাউন্ট খুলতে পারে। তাই নগদ একাউন্ট খোলা নিয়ে কোনো ঝামেলা মনে না করে সহজে নগদ একাউন্টে খুলে আপনি আপনার আর্থিক লেনদেন করতে পারেন। 

তবে অবশ্যই আপনাকে মনে  রাখতে হবে তা হচ্ছে আপনার নগদ একাউন্টে পাসওয়ার্ড বা পিন কোড অন্য কাউকে শেয়ার করা যাবে না। এবং পাসওয়ার্ড বা পিন কোডটিকে মুখস্ত বা মনে রাখতে হবে যাতে আপনি যখন তখন নগদ একাউন্ট সহজে ব্যবহার করতে পারেন। 

আশাকরি আমাদের এই কনটেন্টে থেকে আপনি নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি সম্পূর্ণ ধারণা পেয়েছেন এবং খুব সহজে নগদ একাউন্ট খুলে  নিরাপদে লেনদেন করতে পারবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex