vlxxviet mms desi xnxx

ইমু কি? ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে

0

আপনি কি একজন ইমু গ্রাহক হতে চান ? ইমু কি? ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে জানতে চান ?

বহুকাল আগে মানুষ যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে,প্রিয়জনের কাছে বার্তা আদান প্রদান এর মাধ্যম হিসেবে চিঠি ব্যবহার করতেন। কবুতরের মাধ্যমে কিংবা কারো মাধ্যমে সেই চিঠি বছর ঘুরে,মাস ঘুরে তার প্রিয়জনের কাছে পৌঁছাতো। এটি ছিল খুব বেশি দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া।কিন্তু সময় পাল্টেছে,পাল্টেছে মানুষের জীবনধারা। প্রযুক্তির উৎকর্ষতার সাথে সাথে মানুষ এখন যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে প্রযুক্তিকে। বিস্তারিত জানুন ইমু কি?ইমু ডাউনলোড করব কিভাবেই?

প্রযুক্তির ক্রমবর্ধমান উন্নতির ফলে, আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে। বহুকাল আগেও যখন মানুষ  চিঠি আদান- প্রদানের বহু পরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে। কিন্ত এখন মানুষ বিশ্বের যেকোনো স্থানে বসে তার প্রিয়জনকে দেখে সরাসরি কথা বলতে পারছে প্রযুক্তির মাধ্যম। ইমু কি?ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে? জানতে হলে চোখ রাখুন

ইমু কি

প্রযুক্তি দিয়েছে বেগ। কেড়ে নিয়েছে আবেগ। প্রযুক্তির ফলে আমাদের জীবনে এসেছে এক বিশাল পরিবর্তন। আমরা চাইলে প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে, খুব সহজে বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের মানুষের সাথে খুব যোগাযোগ করতে পারছি ,কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই। প্রযুক্তির এই অন্যতম সুবিধা হলো ইমু। ইমু মূলত একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সফটওয়্যার। যার মাধ্যমে আপনি প্রিয়জনের সাথে খুব সহজেই যোগাযোগ করতে পারবেন।

মূলত ইন্টারনেটকে ব্যবহার করে, এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কাজ করে। .ইমুর বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে। চলুন তাহলে জেনে নেই ইমুর সুবিধা সমূহ:

  • ইমুর মাধ্যমে ঘরে বসে কিংবা বাইরে যেকোনো স্থান থেকে বার্তা আদান প্রদান করা যায়।

  • ইমুর মাধ্যমে ছবি আদান প্রদান করা যায়।

  • ইমুর মাধ্যমে ভিডিও আদান প্রদান করা যায়।

  • ইমুর মাধ্যমে প্রয়োজনের সাথে অডিও ভিডিও কোলে বার্তা আদান প্রদান করা যায়।

  • ইমুর মাধ্যমে গ্রূপ কল করা যায়।

  • খুব সহজেই সকলের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করা যায়।

ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে?

অন্যতম জনপ্রিয় একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হলো ইমু। ইমুর ইন্টারফেস এমনভাবে সাজানো হয়েছে যে যেকোনো বয়সের মানুষ খুব সহজে ইমু ব্যবহার করতে পারবে। ইমু তাই সবাই ব্যবহার করতে চায়। আপনি চাইলে খুব সহজেই ডাউনলোড করে ফেলতে পারেন জনপ্রিয় এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি। আপনি আপনার ব্যবহৃত এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন কিংবা স্মার্টফোনে এ করে ফেলতে পারেন এই সফটওয়্যারটি ডাইনলোড। চলুম তাহলে জেনে নেই ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে তার নিয়ম সম্পর্কে-

  • প্রথমে আপনার ব্যবহৃত এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন কিংবা স্মার্টফোন থেকে গুগল প্লে স্টোর নামক সফটওয়্যারটিতে যাবেন।

  • সফটওয়্যারটিতে গিয়ে আপনাকে ইমু লিখে সার্চ দিতে হবে।

ইমু ব্যবহারের সুবিধা

  • ইমু বিটা নামক সফটওয়্যারটিতে ইন্সটল লেখা নামক অপশনে ক্লিক করে নিবেন।

মেয়েদের ইমু মোবাইল নাম্বারঃ

এভাবেই খুব সহজেই আপনি ইমু ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।ইমু কি?ইমু ডাউনলোড করে কিভাবে জানতে হলে চোখ রাখুন।

ইমু ডাউনলোড সফটওয়্যার download

ইমু এমন একটি সফটওয়্যার যা সারা বিশ্বব্যাপী প্রচলিত। এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করতে পারবেন বড় থেকে ছোট বয়সের যে কোনো ব্যক্তি। আপনি যদি ইমু ব্যবহার করতে চান তাহলে সবার আগে আপনাকে ইমু ডাউনলোড করে নিতে হতে।

  •  গুগল প্লে অপশনে গিয়ে ইমু লিখে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন আপনার কাঙ্খিত সফওয়্যারটি।

  •  আপনাদের সুবিধার্থে আমি ইমু সফটয়্যারটি লিংক যুক্ত করে দিচ্ছি।

লিংক:https://play.google.com/store

ইমু ডাউনলোড সফটওয়্যার download

ইমু সেটিং

ইমু সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে আপনাকে ইমুর সেটিংস পরিবর্তন করে নিতে হবে। কিভাবে আপনি সফটওয়্যারটির সেটিংস পরিবর্তন করে নিতে পারবেন চলুন জেনে নেই।

  • Settings অপশনে গিয়ে about সেকশনে হিয়ে প্রথমে গিয়ে আপনি আপনার নাম দিবেন। আপনি যে নাম ইমু খুলবেন তার উপর ভিত্তি করে নাম সেট করে দিবেন।

  • যেহেতু একাউন্ট আপনার সেক্ষেত্রে নিজের একটি প্রোফাইল ছবি যুক্ত করে দিবেন setting অপশনের about এ গিয়ে।

  • ছবি যুক্ত করে দেওয়ার পর আপনি আপনার ইমু স্টোরি কাদের সাথে শেয়ার করতে চান তা সিলেক্ট করে নিবেন।তার জন্য প্রথমে আপনাকে settings এ ক্লিক করে আপনার privacy অপশনে গিয়ে তা পরিবর্তন করে নিতে হবে।

  • আপনি চাইলে আপনার চ্যাটের রং পরিবর্তন করে নিবেন। আপনি ইমু ব্যবহারকারীর কোন একাউন্টের চ্যাট এর রং পরিবর্তন করতে চান তা করতে পারবেন। setting অপশনে Chat colour  নামক অপশনে গিয়ে।

  • আপনি চাইলে নিজের পছন্দের একটি রিংটোন সেট করে নিতে পারেন। সেই জন্য আপনাকে setting থেকে নোটিফিকেশন অপশনে গিয়ে default Ringtone অপশনে গিয়ে নিজের পছন্দের রিংটোন সেট করে নিতে পারেন।

  • অনেক সময়ে ইমুতে আপনার বন্ধুবান্ধন অনেক ধরণের ছবি শেয়ার করে যা আপনার মোবাইল ফোনে অটোমেটিক সেভ হয়ে যায়। কিন্তু আপনি চাইলে setting  অপশনে গিয়ে এটা পরিবর্তন করে নিবেন। সেইজন্য আপনাকে ইমুর settng অপশনে থেকে আপনাকে স্টোরেজ গিয়ে storage photos  এবং storage videos গিয়ে ক্লিক করলে তা বামে আসবেন।

  • অনেক সময় ইমুতে একটিভ স্ট্যাটাস ও থাকলে প্রচুর পরিমাণে কল আসার সম্ভাবনা থাকে। আপনি চাইলে নিজের একটিভ স্ট্যাটাস অফ করতে পারেন। setting অপশন এ যাবেন। প্রাইভেসীতেগিয়ে আপনি লাস্ট সীন অফ করার জন্য নো বডি ক্লিক করতে পারেন। এতে আপনার একটিভ স্ট্যাটাস কেউ দেখতে পারবেন এ।

এভাবেই আপনি খুব সহজে ইমুর সেটিং নিজের সুবিধামত পরিবর্তন করে নিবেন।ইমু কি?ইমু ডাউনলোড করব? জানতে হলে সাথেই থাকুন।

ইমু ব্যবহারের সুবিধা:

আপনি চাইলে ব্যবহার করতে পারেন ইমু। চলুন তাহলে জেনে নেই ইমু ব্যবহারের সুবিধা:

  • ইমুর ইন্টারফেস:

ইমুর খুব সহজ ইন্টারফেস রয়েছে। যেখানে আপনি সকল বয়সের মানুষ খুব সহজে ব্যবহার করতে পারেন ইমুকে।

  • অডিও ও ভিডিও কলিং সুবিধা:

আপনি ইমুতে সহজে অডিও এবং ভিডিও কল করতে পারবেন যেকোনো ধরণের ঝামেলা ছাড়াই।

  • বার্তা আদান প্রদান করা:

ইমুর মাধ্যমে আপনি খুব সহজে আপনার বার্তা আদান প্রদান করতে পারবেন কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই।

  • ছবি বিনিময়:

আপন ইমুর মাধ্যমে প্রিয়জনদের সাথে বিভিন্ন ধরণের ছবি বিনিময় করতে পারবেন।

  • কন্টাক্ট এড করা:

আপনি খুব সহজে আপনার ব্যবহৃত কন্ট্রাক্ট এড করে ব্যবহার করতে পারেন ইমুকে।

  • গ্রুপ কল সুবিধা:

ইমুতে খুব সহজে আপনি আপনার পরিবারের সাথে, প্রিয়জনের সাথে গ্রপ কলের সুবিধা উপভোগ করতে পারেন কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই।

  • লোকেশন শেয়ারিং সুবিধা:

আপনি চাইলে খুব সহজে ইমুর মাধ্যমে আপনার লোকেশন শেয়ার করে দিতে পারেন প্রিয়জনদের কাছ।

  • ইমু গ্রূপ ক্রিয়েট সুবিধা:

ইমুতে আপনি চাইলে গ্রূপ ক্রিয়েট করতে পারেন।

এমন আরও নানান ধরণের সুবিধা বিদ্যমান রয়েছে ইমুতে। তাই ইমু কি? ইমু ডাউনলোড করে কিভাবে? জানতে হলে চোখ রাখুন

মেয়েদের ইমু মোবাইল নাম্বারঃ

আজকাল অনেক মানুষই ইমু একাউন্ট খুলে থাকে। অনেক এ যুক্ত হতে চায় ইমুতে। তবে সব কিছুর যেমন ভালো দিক আছে, ঠিক তেমনি করে খারাপ দিক আছে। ইমুতে আজকাল মেয়ের নাম্বার নিয়ে বিভিন্ন কুচক্রি মহল নানান ধরনের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হচ্ছে। বিভিন্ন ধরণের মানহানি করা হচ্ছে মেয়েদের।

মেয়েদের ইমু ব্যবহারের ক্ষেত্রে অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। মেয়েদের ইমু নাম্বার অবশ্যই হাইড করে রাখা উচিত। এমন অপরিচিত কারো নম্বর দেখলেই সাথে সাথে ব্লক  করে ফেলা উচিত। অপরিচিত নম্বর থেকে কল আসলে সাথে সাথে রিপোর্ট করে ফেলা উচিত। বিস্তারিত জানুন ইমু কি? ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে?

উপসংহারঃ সময়ের সাথে সাথে ইমু বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে।আশা করি আজকের পোস্টটির মাধ্যমে ইমু নিয়ে আপনাদের ধারণা পরিষ্কার হয়েছে। পাশাপাশি আপনারা ইমু কি?ইমু ডাউনলোড করব কিভাবে? প্রশ্নের উত্তর জানতে পারবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

sex videos
pornvideos
xxx sex